ডিবি পরিচয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৮:২২ পিএম, ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার সোনাহাট ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি রাজ্জাক মণ্ডলকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সোনাহাট বাজার থেকে ডিবি পরিচয় দিয়ে কয়েকজন ব্যক্তি মাদক রাখার অভিযোগে রাজ্জাক মণ্ডলকে তুলে নিলেও সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ডিবি) আতিকুর রহমান।

রাজ্জাক মণ্ডল সোনাহাট ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি। তিনি ওই এলাকার মৃত রহিম মণ্ডলের ছেলে।

ভুক্তভোগী রাজ্জাক মণ্ডলের পরিবারের দাবি, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিবেশী মিজু নামে এক ব্যক্তি রাজ্জাক মণ্ডলকে ফাঁসিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় রাজ্জাক মণ্ডল রাস্তার পাশে মোটরসাইকেল রেখে সোনাহাট বাজারে প্রবেশ করেন। এসময় ডিবি পরিচয়ে কয়েকজন ব্যক্তি রাজ্জাক মণ্ডলকে আটক করে তাকে মোটরসাইকেলের কাছে নিয়ে আসেন। পরে মোটরসাইকেলের সিট খুলে সেখান থেকে মাদক উদ্ধার করেন।

রাজ্জাক মণ্ডলের স্ত্রী রহিমা খাতুন জানান, তার স্বামী মাদক ব্যবসাতো দূরের কথা কখনও মাদক ছুঁয়েও দেখেননি। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিজু নামের এক প্রতিবেশী স্বামীর মোটরসাইকেলে মাদক রেখে ফাঁসিয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।

সোনাহাট ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম দুদু বলেন, রাজ্জাকের সঙ্গে প্রতিবেশী মিজানুর রহমান মিজুর জমি নিয়ে বিরোধ চলছিলো। আমি যতটুকু জানতে পেরেছি ওই মিজু রাজ্জাককে ফাঁসিয়েছেন।

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুন্নবী চৌধুরী জানান, রাজ্জাক মণ্ডলকে ফাঁসানো হয়েছে। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে মিজু নামে স্থানীয় এক ভূমিদস্যু তাকে ফাঁসিয়েছেন।

কুড়িগ্রাম জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক আতিকুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে কথা বলতে চাইলে তিনি প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

মাসুদ রানা/আরএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]