পানিতে চুবিয়ে কথিত পীরের চিকিৎসা, এলাকায় তোলপাড়

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৬:২৯ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তাবরিজ সরকার নামের এক কথিত পীরের বিরুদ্ধে। তার অপচিকিৎসায় সম্প্রতি এক রোগী মারা যাওয়ায় স্থানীয়দের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, উপজেলার কলাছড়া গ্রামের খায়রুল আলম সরকারের ছেলে তাবরিজ সরকার। বাবা খায়রুল আলম সরকার বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা করতেন। এরপর থেকে এ পেশায় জড়িয়ে পড়েন তাবরিজ সরকার। তার কাছে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের তিলের তেল পড়া ও পুকুরের পানিতে চুবিয়ে চিকিৎসা করতে থাকেন।

pirr

গত ১২ সেপ্টেম্বর (রোববার) রাত সাড়ে ৮টার দিকে কুমিল্লার তিতাস উপজেলা থেকে কাউসার (৩৫) নামের এক মানসিক ভারসাম্যহীন যুবককে তাবরিজের কাছে নিয়ে আসেন স্বজনরা। দীর্ঘ ২ ঘণ্টা পর কাউসারের পরিবারের সদস্যরা তাবরিজের দেখা পান। পরে কাউসারকে তার বাড়ির পাশের একটি নালায় প্রায় এক ঘণ্টায় বার-বার ডুবানো হয়। এতে মারা গেলে কাউসারকে পরদিন মরদেহটি পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে নিয়ে যান।

রুস্তম মিয়া নামের স্থানীয় এক বাসিন্দা জানান, মাজারের পাশে একটি নালায় রাতে চুবিয়ে ওই যুবককে মেরে ফেলা হয়েছে। এর আগেও অনেকবার এমন করছে তাবরিজ পীর। কিন্তু এসব ঘটনায় ধামাচাপা দেওয়া হয়।

নজির মিয়া নামের আরেকজন বলেন, তাবরিজের বাবার আমল থেকে এখানে রোগীদের তেল পড়া দেওয়া হতো। তেমনভাবে তাবরিজের পীরের কাছে তেল পড়ার জন্য অনেকেই আসেন।

pirr

বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, মাজারের এমন একটি ঘটনা এলাকাবাসীর কাছ থেকে শুনেছি। বিষয়টা আমাদের এলাকার জন্য লজ্জাজনক। আমি খোঁজখবর নিচ্ছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত পীর তাবরিজ সরকার বলেন, কুমিল্লার কাউসারের সঙ্গে আসা লোকজন আমাকে দেখালো তার সারা শরীরে দাগ। আবার আমাকে বললো তারে বাইন্দা রাখে এ কথা বলতেই সে দূরে পানিতে নেমে ডুব দেওয়া শুরু করে। পানি থেকে উঠাতে গেলেই সে কেমন যেন শুরু করে। তারপরে আমি তাকে একটা গাড়ি ঠিক করে দেই তখন তারা চলে যান।

বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মির্জা হাসান বলেন, ভুক্তভোগীর স্বজনরা লিখিত কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আবুল হাসনাত মো. রাফি/আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]