জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে ৪ সন্তানসহ মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৫:৩৬ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

লক্ষ্মীপুরে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে চার সন্তানসহ আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন মাহমুদা বেগম নামের এক নারী। তাদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পারিবারিক কলহের জেরে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের আবিরনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, লক্ষ্মীপুর শহরের পোস্ট অফিস সড়কের বাংলাদেশ মেডিকেল নামের ফার্মেসির মালিক নাদিম মাহমুদ ও তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমের দীর্ঘদিন পারিবারিক কলহ চলে আসছে। তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। এর জেরে শনিবার মাহমুদা ঘরের দরজা বন্ধ করে তিন ছেলে ও এক মেয়েকে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাওয়ান। এ সময় তিনি নিজেও বিষপান করে মৃত্যু নিশ্চিত করতে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে শিশুদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ঘরের দরজা ভেঙে তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

মাহমুদার মেয়ে পান্না (৬) বলে, তার মা রাতে সবাইকে জুস খাইয়েছেন। এরপর কী হয়েছে তা তার মনে নেই। ধারণা করা হচ্ছে, জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে সন্তানদের এবং নিজে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন ওই নারী।

মাহমুদার স্বামী নাদিম মাহমুদ বলেন, স্ত্রীর কারণে আমাকে অশান্তিতে থাকতে হয়। সে সবসময় আমাকে টাকার চাহিদা দেখায়। সে প্রায়ই সন্তানদের নিয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিতো।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. কমলাশীষ বলেন, মা-সন্তানদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। তাদের আশঙ্কামুক্ত হতে ৭২ ঘণ্টা সময় অপেক্ষা করতে হবে।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) ইমদাদুল হক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কাজল কায়েস/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]