দেশে ফিরলেন ভারতে পাচার হওয়া ৩৭ বাংলাদেশি

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বেনাপোল (যশোর)
প্রকাশিত: ০৬:৩৩ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

যশোরের বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছেন বিভিন্ন সময়ে ভারতে পাচার হওয়া ৩৭ বাংলাদেশি। এদের মধ্যে ২১ কিশোর, ১২ কিশোরী ও চার নারী।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে বেনাপোল চেকপোস্টে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে তাদের হস্তান্তর করে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের ফাস্ট সেক্রেটারি (পলিটিক্যাল) শামিমা ইসলাম স্মৃতি, শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মীর আলিফ রেজা, বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান, রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিক, জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের সিনিয়র প্রোগ্রামার কর্মকর্তা মুহিত হোসেন।

ফেরত আসা ৩৭ জনের মধ্যে মানবাধিকার সংস্থা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার ১৯ জন, রাইটস যশোর ১৬ জন ও জাতীয় মহিলা আইনজীবী সংস্থা দুজনকে গ্রহণ করে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, সীমান্ত পথে বিভিন্ন সময়ে ভারতে পাচার হওয়া ৩৭ জন বাংলাদেশি ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে আজ ফিরে এসেছে। ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে তাদের নেওয়া হবে পোর্ট থানায়। সেখান থেকে তাদেরকে তিনটি বেসরকারি এনজিও সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া হবে।

জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের সিনিয়ার প্রোগ্রামার কর্মকর্তা মুহিত হোসেন জানান, সংসারে অভাব অনটনের সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময় ভালো কাজের কথা বলে এসব কিশোর-কিশোরী ও নারীদের ভারতে পাচার করেন দালালরা। পরে তাদের বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ কাজে ব্যবহার করা হয়। ভারতীয় পুলিশ পাচারকারীদের কাছ থেকে তাদের উদ্ধার করে আদালতে পাঠায়। সেখান থেকে তাদের আশ্রয় হয় ভারতীয় এনজিও সংস্থার শেল্টার হোমে। পরে উদ্ধার হওয়ারা বাংলাদেশি কিনা তা যাচাই করা হয়। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তারা আজ দেশে ফিরেছে।

রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক জানান, ফেরত আসা ৩৭ জনকে বেনাপোল পোর্ট থানা থেকে যশোর বিভিন্ন শেল্টার হোমে রাখা হবে। পরে অভিভাবকদের এনে পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

মো. জামাল হোসেন/এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]