হিলিতে আমদানি কমেছে পেঁয়াজের, বেড়েছে দাম

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বিরামপুর (দিনাজপুর)
প্রকাশিত: ০৫:৪৩ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে গত কয়েকদিনের তুলনায় পেঁয়াজ আমদানি কিছুটা কমেছে। ফলে স্থানীয় কাঁচাবাজারে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। ভারতের বাজারে পেঁয়াজের দাম কিছুটা বাড়ায় এমনটি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আমদানিকারক ও বিক্রেতারা। আমদানি বাড়লে দাম কমে আসবে বলেও জানান তারা।

হিলি স্থলবন্দর পানামা পোর্ট লিংক লিমিটেডের তথ্যমতে, ১৯ সেপ্টেম্বর ভারত থেকে ২১টি ট্রাকে ৫৮৬ টন, ২০ সেপ্টেম্বর ১৭ ট্রাকে ৪৬৪ টন এবং ২১ সেপ্টেম্বর ৯ ট্রাকে ২৫৪ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে হিলি কাঁচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, দেশি পেঁয়াজ কেজিপ্রতি ৩৫-৩৬ টাকা আর ভারতীয় পেঁয়াজ প্রতি কেজি ২৪-২৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা গত কয়েক দিনের তুলনায় কেজিতে ৩-৪ টাকা বেশি। তিনদিন আগে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ছিল ২২-২৪ টাকা।

jagonews24

দাম বাড়ার বিষয়ে খুচরা ব্যবসায়ী মো. শাকিল হোসেন বলেন, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি কমায় আমরাও বেশি দামে আড়তদারদের কাছ থেকে কিনছি। ফলে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে কেজিতে ৩-৪ টাকা দরে বেশি বিক্রি করতে হচ্ছে। এতে অনেক ক্রেতার সঙ্গে আমাদের বাগবিতণ্ডাও হচ্ছে। তবে আমদানি বেশি হলে আবারও বাজার স্বাভাবিক হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হিলি আমদানি ও রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জাগো নিউজকে বলেন, আমদানিকারকরা ইচ্ছে করে কোনো পণ্যেরই দাম বাড়িয়ে দেয় না। ভারতের বাজারে পেঁয়াজের বর্তমান যে দাম, সে টাকায় কিনে বাংলাদেশে আমদানি সময় খরচ বেড়ে যাচ্ছে। তাই আমদানিও কিছুটা কমে গেছে। ফলে বাজারে একটু দাম বেড়েছে। আমদানি স্বাভাবিক হলে আবারও বাজার নিয়ন্ত্রণে আসবে।

এসজে/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]