সংস্কারের এক মাস পর সেতুর সংযোগ সড়কে ধস

লিপসন আহমেদ লিপসন আহমেদ , সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৫:২৮ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০২১

সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে সংস্কারের এক মাস পর আবারো ধসে যাচ্ছে সদরপুর সেতুর সংযোগ সড়কের একাংশ। এতে যে কোনো সময় দুর্ঘটনার আশঙ্কা পরিবহন চালক, যাত্রী ও স্থানীয়দের। একই সঙ্গে সড়কটির স্থায়ী সংস্কারের দাবি জানান তারা।

রোববার (১০ অক্টোবর) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার সদরপুর এলাকায় মহাসিংহের শাখা নদী নাইন্দার ওপর নির্মিত সেতুর পশ্চিম পাশের সংযোগ সড়কের মাটি সরে গেছে। পিচ ঢালাইয়ের একাংশ দেবে গেছে। সে জায়গায় লাল গাছের ডাল দিয়ে রাখা হয়েছে।

jagonews24

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট যাতায়াতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ সদরপুর সেতুটি। সেতুর পশ্চিমপাশের সংযোগ সড়কের দক্ষিণে একাধিকবার দেবে গিয়েছিল। গত এক মাস আগে সংস্কার করা হয়। কিন্তু আবারো সেতুর সংযোগ সড়কের মাটি সরে যাওয়ায় যানবাহন ও পথচারীদের চলাচলে ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। বার বার সদরপুর সেতুটির পশ্চিমপাশের দক্ষিণ দিকটা ধসে পড়ছে। এ অংশটুকু স্থায়ী মেরামতের দাবি জানান স্থানীয়রা।

সদরপুর গ্রামের বাসিন্দা তাজ উদ্দিন বলেন, সদরপুর সেতুর পশ্চিমপাশের সংযোগ সড়ক বারবার ধসে পড়ছে। এর আগেও ধসে পড়ায় সংস্কার হয়েছিল, কিন্তু আবারো ভাঙছে।

jagonews24

একই গ্রামের শামীম আহমদ বলেন, গত একমাস আগে সংযোগ সড়কের মেরামত করা হয়েছে। আবারো সড়কের দক্ষিণ দিকটা দেবে গেছে। সরে গেছে মাটি। ঠিকাদাররা নিজেদের খুশিমতো কাজ করে যাচ্ছে আর কর্তৃপক্ষ সেই কাজ তদারকি করেন না।

সিলেট থেকে গাড়ি নিয়ে আসা লেগুনা চালক জুসেফ মিয়া বলেন, যে কোনো সময় ওই সেতুর সংযোগ সড়কের একপাশ ভেঙে বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাই দুর্ঘটনার আগেই যেন সড়ক মেরামত করা হয়।

jagonews24

শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ জাগো নিউজকে বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের এই ব্রিজের অ্যাপ্রোচটি অতি গুরুত্বপূর্ণ। অ্যাপ্রোচটি ধসে যাওয়ায় সড়ক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ বিষয়ে আমরা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবো।

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম প্রামাণিক জাগো নিউজকে বলেন, সদরপুর সেতুর ত্রুটিপূর্ণ অংশে কাজ চলমান আছে। ঠিকাদারের লোকজন এখন সেতুটির নিচের অংশে কাজ করেছে। তবে যে অংশ দেবে গেছে সেই অংশ আবারো মেরামতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লিপসন আহমেদ/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]