বগুড়ায় হাইওয়ে থানার পুলিশ কনস্টেবল প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৩:০৭ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০২১
ফাইল ছবি

বগুড়ার নন্দীগ্রামে কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার এক পুলিশ কনস্টেবলকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। সিভিল পোশাকে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ার পর তাকে প্রত্যাহার করা হয়।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, গত শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় নন্দীগ্রাম উপজেলার কুন্দারহাট বাজারে টুকু মিয়ার হোটেলে সিভিল পোশাকে বসে ছিলেন কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার পুলিশ কনস্টেবল হাসান আলী। এসময় ভাটগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জুলফিকার আলীর ছেলে আহম্মেদ আলীসহ স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে উঠলে হাসান আলী হাইওয়ে থানায় ফোন করেন। তখন অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা এসে তাকে উদ্ধার করে।

কনস্টেবল হাসান আলী বলেন, ‘আমি সিভিল পোশাকে চা খেতে গিয়াছিলাম। সেখানে বিভিন্ন কথার জেরে তারা পুলিশকে গালিগালাজ করায় তার প্রতিবাদ করেছি। এনিয়ে তর্ক-বিতর্ক হয়। পরদিন শনিবার (১৬ অক্টোবর) আমাকে থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়।’

কুন্দারহাট হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সন্ধ্যায় কুন্দারহাট বাজারে তুচ্ছ ঘটনার জেরে কথাকাটাকাটি হয়েছে। সিভিল পোশাকে থাকায় কনস্টেবল হাসানকে তারা চিনতে পারেনি। ওই পুলিশ সদস্যকে প্রশাসনিক কারণে প্রত্যাহারের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এফআরএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]