ঘোড়ায় চড়ে ভোট দিতে এলেন জবান আলী

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বিরামপুর (দিনাজপুর)
প্রকাশিত: ০৫:৩৩ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০২১

তখন দুপুর আড়াইটা। সবাই লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছেন। এসময় দেখা গেলো ব্যতিক্রমী এক দৃশ্য। ঘোড়া হাঁকিয়ে ভোটকেন্দ্রে এসেছেন বয়সের ভারে নুয়ে পড়া অশীতিপর এক বৃদ্ধ। গায়ে সাদা পাঞ্জাবি। অনেকটা বীরবেশে ভোট দিয়ে বেশ কয়েকটি ভোটকেন্দ্র পরিদর্শনে যান তিনি।

রোববার (২৮ নভেম্বর) তৃতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের সীমান্ত এলাকা দাউদপুর দারুল উলুম দাখিল মাদরাসার ভোটকেন্দ্রে আলাপ হয় এ প্রতিবেদকের।

তিনি জানালেন তার নাম জবান আলী। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘কেন্দ্র থেকে আমার বাড়ির রাস্তাটি চলাচলের প্রায় অযোগ্য। বাড়ি থেকে ভোটের রাস্তাটি বেশ উঁচু-নিচু। ভ্যানে আসতে অনেক কষ্ট হয়। এজন্য নিজের ঘোড়া নিয়ে এসেছি ভোট দিতে।’ ক্ষোভ প্রকাশ করে এ বৃদ্ধ বলেন, প্রার্থীরা নির্বাচন এলেই বলেন, রাস্তা করে দেবেন। কিন্তু রাস্তা ঠিক হয় না।

অনেকটা শখেরবসেই বাড়িতে ঘোড়া লালন-পালন করেন জবান আলী। তিনি বলেন, বর্তমানে ঘোড়ার প্রচলন নেই বললেই চলে। কালের বিবর্তনে দিন দিন ঘোড়ার ব্যবহার হারিয়ে যাচ্ছে। তবে ঘোড়া পালন করি বলে বাড়ির লোকজনদের অনেক কথা শুনতে হয়।

jagonews24

দাউদপুর দারুল উলুম দাখিল মাদরাসা কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ফারুকে আজম বলেন, এই কেন্দ্রে মোট ভোটার ১ হাজার ৬৪৪ জন। বিকেল ৩টা পর্যন্ত প্রায় ৭৮ শতাংশ ভোট পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই কেন্দ্রে চাচা-ভাতিজা ইউপি সদস্য (মেম্বার) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া বড় ভাই মেম্বার এবং ছোট বোন সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]