জামায়াত নেতা থেকে নৌকার মাঝি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঠাকুরগাঁও
প্রকাশিত: ০৪:১৭ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

চতুর্থ ধাপে ইউপি নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও সদরের ১৭ নম্বর জগন্নাথপুর ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন আলাল মাস্টার। তিনি একসময় ছাত্রশিবির ও জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতি করতেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। বিষয়টি নিয়ে কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

জগন্নাথপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দেবেশ চন্দ্র শর্মা ও সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় স্বাক্ষরিত বেশকিছু নথিপত্র ও অভিযোগনামা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়ছে, আলাল মাস্টার একসময় সক্রিয় শিবিরকর্মী ছিলেন। পরে ২০০৯ ও ২০১১ সাল পর্যন্ত তিনি ইউনিয়ন জামায়াতের জেনারেল সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরে বিএনপিতে যোগদান করেন। বিএনপির দলীয় সমর্থন নিয়ে ২০১২ সালের ইউপি নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরাজিত হন। তার বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির হয়ে ভোটকেন্দ্র ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ রয়েছে।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, বিভিন্ন সময়ে আওয়ামী লীগের কর্মী ও ভোটারদের নির্যাতন করেছেন আলাল মাস্টার। ২০১৫ সালে সুকৌশলে তিনি আওয়ামী লীগে যোগদান করেন। ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত হন। পরে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ নিয়ে আলোচনা শুরু হলে ২০১৯ সালে প্রকাশিত রংপুর বিভাগের ৩৮৯ জন অনুপ্রবেশকারীর তালিকায় তার নাম উল্লেখ করা হয়।

jagonews24

আলাল মাস্টারের জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে সম্পৃক্ততার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা জামায়াতের আমির মাওলানা আব্দুল হাকিম। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘তিনি ছাত্রজীবনে ছাত্রশিবিরের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তার সাংগঠনিক দক্ষতার কারণে জগন্নাথপুর ইউনিয়নে জামায়াতের জেনারেল সেক্রেটারির দায়িত্ব দেওয়া হয়।’

জগন্নাথপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দেবশ চন্দ্র শর্মা বলেন, ‘আলাল মাস্টারতো সুবিধাদি লোক। যেই দল ক্ষমতায় থাকবে, সে সেই দলের হয়ে যাবে। তার ভাই জেনারুল এখনও ইউনিয়ন বিএনপির অর্থবিষয়ক সম্পাদক।’
জানতে চাইলে নৌকার চেয়ারম্যানপ্রার্থী আলাল মাস্টার জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি বিএনপির সমর্থন করতাম। জামায়াত-শিবির...এটা কিন্তু অনেক আগের কথা। এই বিষয়ে আমি বেশি কিছু বলতে চাচ্ছি না।’

ঠাকুরগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অরুণাংশু দত্ত টিটু জাগো নিউজকে বলেন, ‘আলাল মাস্টারের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি আমি জানি। যারা নৌকা প্রতীক চেয়ে পাননি তারাই এসব অভিযোগ নিয়ে ঘুরছেন। তিনি এর আগেও নৌকার প্রতীকে নির্বাচন করে জয় পেয়েছেন। হয়তো সেই কারণেই কেন্দ্র থেকে তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।’

তানভীর হাসান তানু/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]