অবশেষে চালু হলো ফেনী হাসপাতালের ডায়ালাইসিস ইউনিট

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ০৭:৫০ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২২
ফেনী জেনারেল হাসপাতালের হেমোডায়ালাইসিস ইউনিট

ফেনী জেনারেল হাসপাতালের হেমোডায়ালাইসিস ইউনিটটি ৩ মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর আবারো চালু হয়েছে।

স্থানীয় বিভিন্ন মাধ্যম থেকে অর্থের যোগান নিয়ে বুধবার (১৯ জানুয়ারি) থেকে জনগুরুত্বপূর্ণ এ ইউনিটটি চালু হয়। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন ভূঞা

এরআগে ৭ অক্টোবর থেকে রিএজেন্ট ও অর্থ সংকটে বন্ধ ঘোষণা করা হয় হাসপাতালের ডায়ালাইসিস ইউনিটটি। ফলে ভোগান্তিতে পড়েন কিডনিজনিত রোগীরা। এ নিয়ে ১৫ জানুয়ারি জাগোনিউজ২৪.কম-এ ‘তিন মাস ধরে বন্ধ ফেনী জেনারেল হাসপাতালের ডায়ালাইসিস ইউনিট ’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে সংশ্লিষ্ট মহলে টনক নড়ে। এর চারদিন পর আবারো ইউনিটটি চালু করা হয়।

বুধবার হাসপাতালের হেমোডায়ালাইসিস ইউনিটের সামনে অপেক্ষমাণ থাকা আবুল কালাম নামের এক ব্যক্তি বলেন, আমার বাবা সাত মাস ধরে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ডায়ালাইসিস সেবা নিয়ে আসছিলেন। কিন্তু অক্টোবর থেকে সেন্টারটি বন্ধ ঘোষণা করায় অর্থাভাবে বাবার ডায়ালাইসিস অনিয়মিত হয়ে পড়ে। বাবা অসুস্থ হয়ে পড়ায় আমরা দিশেহারা হয়ে পড়ি। মঙ্গলবার রাতে জানলাম হাসপাতালে আবার ডায়ালাইসিস শুরু হচ্ছে। তাই বাবাকে নিয়ে ছুটে এসেছি।

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন ভূঞা বলেন, ফেনী ও আশপাশের জেলা থেকে আসা অসহায় ও দুস্থ রোগীদের কথা চিন্তা করে ২০২০ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি ১০ শয্যার কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট চালু করা হয়। উন্নয়ন বরাদ্দের অর্থে চালু হওয়া এ ইউনিটে তিন শিফটে প্রতিদিন ৩০ জন কিডনি রোগীর ডায়ালাইসিস সেবা চলে আসছিল। কিন্তু ৭ অক্টোবর থেকে রিএজেন্ট ও বরাদ্দ সংকটে ইউনিটটি আর চালানো সম্ভব হচ্ছিল না।

তিনি আরও বলেন, স্থানীয় বিভিন্ন মাধ্যম থেকে অর্থের যোগান নিয়ে বুধবার থেকে আবারও জনগুরুত্বপূর্ণ এ ইউনিটটি চালু করা হয়েছে। রোগীদের আবারো সেবা দেওয়া হচ্ছে। ইউনিটটি নিয়মিত চালু রাখতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

নুর উল্লাহ কায়সার/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]