চুয়াডাঙ্গায় ইউপি ভোটের গণসংযোগে সহিংসতা, আহত ৬

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৩:০৬ এএম, ২৯ জানুয়ারি ২০২২

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ছয়জন আহত হয়েছেন। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শুকুর আলীর সমর্থকেরা এ হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান।

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) রাতে উপজেলার তিতুদহ সেন্টারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতদের মধ্যে পাঁচজনই মিজানুরের কর্মী-সমর্থক। এর মধ্যে তসলিম উদ্দিন নামে আহত একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ও তিতুদহ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমানের কর্মী-সমর্থকরা নির্বাচনী শোডাউন শেষে তিতুদহ সেন্টারপাড়ায় অবস্থান নেন। এসময় তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নৌকার প্রার্থী শুকুর আলীর লোকজন প্রতিপক্ষের কর্মী-সমর্থকদের ওপর ধারালো ছুরি ও লাঠি নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়।

এসময় ছুরিকাঘাতে আহত হন তিতুদহ ইউনিয়ানের নুরুল্লাপুর গ্রামের তসলিম উদ্দিন। এছাড়াও একই গ্রামের মিঠু, আব্দুল লতিফসহ আরও পাঁচজন আহত হন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. আহসানুল হক বলেন, তসলিমের তলপেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফুল কবির জাগো নিউজকে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ছুরিকাঘাতে একজন আহত হয়েছেন। বাকিরা অল্প আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সালাউদ্দীন কাজল/এমকেআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]