১০ টাকা না পেয়ে তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৮:১৮ পিএম, ১৬ মে ২০২২
ফাইল ছবি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বাবা-মায়ের কাছে ১০ টাকা চেয়ে না পেয়ে সোহাগ মিয়া (১০) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্র গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সোমবার (১৬ মে) সকালে উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সোহাগ দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামের দিনমজুর রিপন মুন্সির ছেলে। সে দক্ষিণ বড়মাছুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সকালে দিনমজুর বাবার কাছে ১০ টাকা চায় শিশু সোহাগ। তবে টাকা না থাকায় দিতে পারেননি বাবা। পরে ঘরে পক্ষাঘাতপ্রস্ত মায়ের কাছে টাকা দাবি করে সোহাগ। তিনিও টাকা দিতে না পারায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে অসুস্থ মাকে মারধর এবং বসতঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। একপর্যায়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

শিশু সোহাগ মিয়ার চাচাতো ভাই ইমন মুন্সি জানান, সোহাগ একটু জেদি প্রকৃতির ছেলে ছিল। সকালে বাবা-মায়ের কাছ থেকে টাকা না পেয়ে সে ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। পরে ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দেয়। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইফরানুল হক জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই সোহাগের মৃত্যু হয়েছে।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বাদল জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।

এসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]