মনপুরায় প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ফেরি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ভোলা
প্রকাশিত: ০৯:০০ পিএম, ২৫ মে ২০২২

ভোলার বিচ্ছিন্ন উপজেলা মনপুরায় প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ফেরি। এরই মধ্যে পূর্বপ্রস্তুতির অংশ হিসেবে মনপুরা উপজেলার রামনেওয়াজ ঘাট, তুলাতলি ঘাট ও হাজীরহাট ঘাটসহ মেঘনা নদীর বিভিন্ন স্পট পরিদর্শন করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

বুধবার (২৫ মে) দুপুরে মনপুরা পরিদর্শনে আসেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) অতিরিক্ত সচিব ও চেয়ারম্যান আহমেদ শামীম আল রাজী ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান কমোডর গোলাম সাদেক।

মনপুরায় প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ফেরি

এ উপলক্ষে উপজেলা অডিটোরিয়ামে এক সুধী সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

মনপুরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেলিনা আক্তার চৌধুরীর সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন অতিথিরা। তারা বলেন, মনপুরাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ফেরি চালুর লক্ষ্যে আমাদের এই পরিদর্শনে আসা। আশা করি দ্রুততম সময়ে মনপুরা নৌরুটে ফেরি চালু করা সম্ভব হবে।

মনপুরায় প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ফেরি

মনপুরা উপজেলার হাজিরহাট এলাকার বাসিন্দা মো. মোজাম্মেল ও কিরণসহ একাধিক বাসিন্দা বলেন, ‘জেলার সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা খুই খারাপ। ইচ্ছা করলে ভোলায় যেতে পারি না। প্রতিদিন সকালে একটি সি-ট্রাক ও দুপুরের দিকে হাতিয়া থেকে দুটি লঞ্চ ঘাটে আসে। তাতে করেই ভোলা সদরসহ বিভিন্ন উপজেলা এবং বরিশালে যাতায়াত করতে হয়।’

বর্তমানে ভোলার অন্যান্য উপজেলার সঙ্গে মনপুরাবাসীর যোগাযোগের জন্য ঢাকা-হাতিয়া রুটে লঞ্চ ও মনপুরা-তজুমদ্দিন রুটে সি-ট্রাক চালু রয়েছে। সকালে একটি সি-ট্রাক ও দুপুরে দুটি লঞ্চ আসে। এছাড় আর কোনো যোগাযোগ ব্যবস্থা নেই।

মনপুরায় প্রথমবারের মতো চালু হচ্ছে ফেরি

এ সময় মনপুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্তি দায়িত্ব) মো. আল নোমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ কেএম শাজাহান মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন মিয়া, যুগ্ম-সম্পাদক মোশারফ হোসেন মজনু ফরাজী, সাংগঠনিক সম্পাদক বায়েজীদ কামাল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জুয়েল সাহা বিকাশ/এসআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]