জয়দেবপুর-পূবাইল সড়কের বেহালদশা

আমিনুল ইসলাম
আমিনুল ইসলাম আমিনুল ইসলাম , জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০১:৫৪ পিএম, ২৮ মে ২০২২
জয়দেবপুর-পূবাইল সড়কের বেহালদশায় ভোগান্তি

গাজীপুর মহানগরীর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত জয়দেবপুর-পূবাইল সড়কটির বেহাল অবস্থায় চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে এলাকার লাখো মানুষ। প্রায় ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি বর্তমানে চলাচলের প্রায় অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

জেলা শহরের সঙ্গে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সংযোগ ও কালীগঞ্জ হয়ে নরসিংদী যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম এ সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন হাজারো যাত্রী ও যানবাহন যাতায়াত করে। তবে সড়কের মাঝে অসংখ্য খানাখন্দ ও ছোটবড় গর্তে যাত্রী দুর্ভোগ অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে।

Gazipur-3

জানা যায়, গাজীপুর শহরের মহিলা কলেজের সামনে থেকে নীলেরপাড়া হয়ে পূবাইল কলেজ গেট পর্যন্ত প্রায় ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সড়কটি প্রায় তিন বছর আগে সংস্কার করে গাজীপুর সিটি করপোরশেন কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সংস্কারের ২/১ মাস পরই রাস্তাটির বিভিন্ন জায়গায় কার্পেটিং উঠে গিয়ে খানাখন্দ সৃষ্টি হতে থাকে। ক্রমেই রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে গেলে সাময়িকভাবে ইটের টুকরা ও খোয়া দিয়ে কয়েক দফা নামমাত্র সংস্কার করা হয়। কিন্তু এ ধরনের সংস্কারে রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী না হয়ে ক্রমে আরও খারাপ হতে থাকে। রাস্তাটি দিয়ে মালবাহী ট্রাক, বড়বড় লড়ি, লেগুনা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা সিলেট মহাসড়ক থেকে গাজীপুর শহরে চলাচল করে। এছাড়া সিলেট থেকে জয়দেবপুর চৌরাস্তাগামী ঢাকা বাইপাস সড়কে যানজট এড়াতে যাত্রীবাহী বাস ও অন্যান্য যানবাহন এ রাস্তাটিকে বাইপাস সড়ক হিসেবে ব্যবহার করে। ফলে এ সড়কটির গুরুত্ব দিনদিন বাড়ছে। কিন্তু সড়কটির গুরুত্ব অনুধাবন করে সেভাবে কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় বর্তমানে এটি চলাচলের অযোগ্য একটি সড়কে পরিণত হয়েছে।

স্থানীয় চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাস বলেন, এ রাস্তাটি দিয়ে নিয়মিত আমি অফিসে ও বাড়িতে যাতায়াত করি। কিন্ত রাস্তাটি দিয়ে বর্তমানে চলাচল কতটা কষ্টকর তা বলে বোঝানোর ভাষা নেই। তিনি অবিলম্বে এ রাস্তাটি সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানান।

Gazipur-3

স্থানীয় বাসিন্দা প্রকৌশলী মোখলেসুর রহমান বলেন, এ রাস্তাটির কোনো অভিভাবক নেই। রাস্তাটি দিয়ে কোনো যানবাহনে যাওয়া তো দূরের কথা, বর্তমানে পায়ে হেঁটেও যাওয়া যায় না। রাস্তাটি নিয়ে এরইমধ্যে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ও মিডিয়াতে বিভিন্ন প্রতিবেদন প্রকাশ হলেও কোনো প্রতিকার হয়নি। কর্তৃপক্ষের শুভবুদ্ধির উদয় হোক।

স্থানীয় অটোরিকশাচালক জাকির হোসেন বলেন, গাজীপুর মহানগরের মধ্যে সড়কটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ হলেও বর্তমানে অবহেলিত। আগে এ সড়ক দিয়ে নীলেরপাড়া, কানাইয়া, ইছালি ও পূবাইল এলাকায় প্রায় পাঁচ শতাধিক অটো চলাচল করতো। এসব অটো দিয়ে শহরের স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীরা নিয়মিত যাতায়াত করতো। কিন্ত বর্তমানে মাত্র দুইশোর মতো অটো চলে অনেক ঝুঁকি নিয়ে। বিভিন্ন সময় এসব অটো গর্তে পড়ে উল্টে যায় এবং বাস-ট্রাক আটকা পরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ থাকে। সড়কটি দ্রুত সংস্কার করা দরকার।

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান কাজল জানান, রাস্তাটি ৬০ ফুট প্রশস্ত করার জন্য জমি অধিগ্রহণের কাজ চলছে। জমি অধিগ্রহণ শেষ হলে রাস্তাটির সংস্কার করা হবে। এতে প্রায় এক বছর সময় লাগতে পারে। তবে বর্তমানে রাস্তাটির অচলাবস্থা নিরসনের জন্য সামিয়কভাবে সংস্কার করার জন্য কর্তৃপক্ষ জরুরি ব্যবস্থা নিচ্ছে।

মো. আমিনুল ইসলাম/এমআরআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]