২০২৫ সালের মধ্যে শতভাগ মানুষ ইন্টারনেটের আওতায় আসবে: পলক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৩:২৯ পিএম, ২৯ মে ২০২২

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ২০২৫ সালের মধ্যে শতভাগ মানুষকে ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে। এ সময়ের মধ্যে তথ্য প্রযুক্তিখাতে ৩০ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

রোববার (২৯ মে) দুপুরে মানিকগঞ্জের ঘিওরে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ২০২৫ সালের মধ্যে তথ্য প্রযুক্তিখাত থেকে পাঁচ বিলিয়ন ডলার আয় করবে বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, পুলিশ স্টেশন, কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোকে অপটিক্যাল ফাইবারের আওতায় আনা হয়েছে। সারাদেশে ১ লাখ ৭০ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলের আওতায় আনা হবে।

এসএসসি ও এইচএসসি পাস করে তরুণ-তরুণীরা এ প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে পারবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, প্রতি বছর এ প্রতিষ্ঠান থেকে এক হাজার ছেলেমেয়ের দক্ষতানির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। দুই একর জমির ওপর ৮৫ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রতিষ্ঠানটি নির্মাণ করা হবে।

তিনি বলেন, মেধা ও প্রযুক্তির শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেশের তরুণরা চাকরি করবে না চাকরির ক্ষেত্রে তৈরি করবে। তরুণদের উদ্যোক্তা ও আত্মনির্ভরশীল করতে ব্রেন চাইন্ড শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার, স্কুল অব ফিউচার, ডিজিটাল এডুটেইনমেন্ট সেন্টারসহ দেশের বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। আগামীতে আমাদের মেধাবী তরুণরা চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রযুক্তি রোবটিকস, আইওটি, সাইবার সিকিউরিটি টুলস তৈরি করে বিদেশে রপ্তানি করবে।

এ সময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাই টেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. বিকর্ণ কুমার ঘোষ। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দেশে ৬৪ জেলায় আইটি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির লক্ষ্যে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করছে বাংলাদেশ হাই টেক পার্ক। এ প্রকল্পের আওতায় মানিকগঞ্জসহ আরও ১০ জেলায় একসঙ্গে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করা হচ্ছে।

ঘিওর ডিএন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত এ আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বিসিবি পরিচালক এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয় ,বাংলাদেশ ডিজেল প্ল্যান্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ব্রি. জেনারেল সৈয়দ রফিকুল ইসলাম, শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের পরিচালক একেএম আব্দুল্লাহ খান, মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খান, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রকল্পের পরিচালক হুমায়ুন কবির, জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মহীউদ্দীন প্রমুখ।

বি এম খোরশেদ/এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]