এক পোশাক কারখানায় ১৫ দিনে তিনবার অগ্নিকাণ্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৭:৩৭ পিএম, ০২ জুন ২০২২
ফাইল ছবি

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে একটি পোশাক কারখানায় ১৫ দিনের ব্যবধানে তিনবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। রহস্যময় এ আগুনে কারখানার ফেব্রিক্স ও মালামাল পুড়ে গেছে। যদিও আগুন লাগা ওই ফ্লোরে কোনো ধরনের বৈদ্যুতিক সংযোগ নেই। তারপরও কেন বারবার সেখানে আগুন লাগছে তা কারখানা কর্তৃপক্ষ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা বলতে পারছেন না। তবে এবার ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা বিষয়টি ভালোভাবে খতিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন।

জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা এলাকায় অবস্থিত নূর গ্রুপের রাইয়ান নিট কম্পোজিট লিমিটেড নামে ওই কারখানাটিতে মে মাসের ১৮ তারিখে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আগুন লাগে। পরে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট দেড়ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এরপর ২৩ মে আবারও সেই একইস্থানে আগুনের সূত্রপাত হয়। এতে ১৫ থেকে ২০ জন শ্রমিক আহত হন। পরে ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট কয়েকঘণ্টা প্রচেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবারও ওই বিল্ডিংয়ের একই ফ্লোরে আগুন লাগে। এতে আহত হন আট থেকে ১০ জন শ্রমিক। পরে ফায়ার সার্ভিসের সাত ইউনিটের দেড়ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

কালিয়াকৈর ফায়ার সার্ভিসের ওয়ার হাউস ইন্সপেক্টর সাইফুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে চন্দ্রা এলাকায় নূর গ্রুপের একটি কারখানার আগুনের ঘটনা ঘটেছে। পরে ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিটের দেড়ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। কারখানাটিতে ১৫ দিনে তিনবার আগুনের ঘটনা ঘটেছে। একই যায়গায় কেন বারবার আগুন লাগছে বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মূলত তারা ওই ফ্লোরে ফেব্রিক্স ও কাপড় স্তূপ করে রেখেছে। এতে ফ্লোরের নিচে ঘেমে ওঠে। যদিও ওই ফ্লোরে কোনো বিদ্যুৎ সংযোগ নেই তবে লাইন অ্যাটাস্ট রয়েছে। সেখান থেকেও আগুনের সূত্রপাত হতে পারে।

কারখানাটির জেনারেল ম্যানেজার এ কে এম জহিরুল ইসলাম বলেন, কারখানায় কীভাবে আগুন লাগে তা বলতে পারছি না। তবে আজ আহত হয়েছে প্রায় ১০ জন। বারবার আগুন কেন লাগছে তাও বলতে পারছি না। প্রতিবারই তিন তলার ফেব্রিক্সের মধ্যে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। একই সময় একই ফ্লোরে আগুনের সূত্রপাত হচ্ছে। এ রহস্যময় আগুন নিয়ে আমরা খুবই বিব্রতকর অবস্থায় আছি।

মো. আমিনুল ইসলাম/এমআরআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]