পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখতে গিয়ে আর ফেরেনি বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ওহিদুল

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ এএম, ৩০ জুন ২০২২
নিখোঁজ ওহিদুর রহমান ওরফে ওহিদুল

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে গিয়েছিলেন ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার পৌর সদরের দাড়িয়ার মাঠ গ্রামের ইউনুস মিয়ার ছেলে ওহিদুর রহমান ওরফে ওহিদুল (৩৫)। এরপর থেকে আর বাড়ি ফেরেননি তিনি।

এ ঘটনায় রোববার (২৬ জুন) স্থানীয় থানায় নিখোঁজ ওহিদুলের বড় ভাই রবি মিয়া সাধারণ ডায়রিও (জিডি) করেছেন।

স্থানীয় ও জিডি সূত্রে জানা গেছে, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা কার্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত গাড়িচালক ইউনুস মিয়ার তিন ছেলের মধ্যে সবার ছোট ওহিদুর রহমান ওরফে ওহিদুল। তার মা মারা গেছেন। বড় দুই ভাই বিয়ে করে পরিবার নিয়ে আলাদা থাকেন। বৃদ্ধ বাবার সঙ্গে বাড়িতে থাকতেন ওহিদুল। বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছেলেটিকে না পেয়ে তার বৃদ্ধ বাবা ও ভাইয়েরা অজানা আতঙ্কে দিন পার করছেন।

ওহিদুলের বাবা ইউনুস মিয়া জাগো নিউজকে জানান, শনিবার (২৫ জুন) সকালে আমার ছেলে ওহিদুল পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখতে যাবে বলে বাড়ি থেকে বের হয়। একটি লুঙ্গি ও হাফ হাতা গেঞ্জি গায়ে সে বের হয়। কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে সে আর বাড়ি ফেরেনি। পথের খরচের জন্য তার কাছে কিছু খুচরা টাকা ছিলো।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. সাহেব আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে বলেন, আমি নিজে ও নিখোঁজ ওহিদুলের ভাই রবি মিয়া এ বিষয়ে স্থানীয় থানায় একাধিকবার গিয়েছি এবং একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে। ওহিদুল খুব শান্ত প্রকৃতির মানুষ। কম কথা বলে। বাইরের লোকেরা তার কথা পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারে না। ভাঙ্গা বাজারে বিভিন্ন দোকানে বসে থাকতো সে। পরিচিতরা তাকে ভালোবেসে পাঁচ-দশ টাকার নোট দিতো। তবে সে টাকার বড় নোট নিতো না।

আলাভোলা প্রকৃতির ওহিদুল বেশ মোটা আকৃতির। তার মুখমণ্ডল গোলাকার এবং মুখে চাপ দাড়ি রয়েছে। গায়ের রং স্যামলা। উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি। হারিয়ে যাওয়া এই বুদ্ধি প্রতিবন্ধীর সন্ধান পেলে ভাঙ্গায় তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়েছে। তার পরিবারের সাথে যোগাযোগের মোবাইল নম্বর: ০১৭১২৫৪২৮২৬, ০১৭১১৫৭১১১৫।

এ ব্যপারে ভাঙ্গা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মনির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে বলেন, নিখোঁজ ব্যক্তি পদ্মা সেতুর উদ্বোধনের দিন লোকজনের সঙ্গে যেকোনো একটা গাড়িতে উঠে পড়েন। আমরা বিভিন্ন স্থানে সন্ধান চালিয়েছি। শরীয়তপুরে এমন একজনের সন্ধান পাওয়া গেছে। তাকে শনাক্তের জন্য পরিবারের লোকজনকে শরীয়তপুর থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইনচার্জ সেলিম রেজা জাগো নিউজকে বলেন, এ বিষয়ে আমার জানা নেই। এমনকি থানায় সাধারণ ডায়রির বিষয়েও তিনি জানেন না বলে জানান।

এন কে বি নয়ন/এফএ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]