ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে: ১০ টোল বুথের ৭টি সচল, ৪ কিমি যানজট

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৪:২৭ পিএম, ০১ জুলাই ২০২২

ফরিদপুরের ভাঙ্গা-মাওয়া-ঢাকা এক্সপ্রেসওয়েতে টোল আদায় শুরু হয়েছে। টোলপ্লাজায় কাউন্টারের সংখ্যা কম থাকায় দুর্ভোগে পড়েন যাত্রী ও চালকরা। সেখানে আটকা পড়েছে শত শত গাড়ি।

স্থানীয়রা জানান, সকাল থেকে মহাসড়কের ফরিদপুরের ভাঙ্গার বগাইল টোল প্লাজায় যানবাহনের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। ১০টি টোল প্লাজার মধ্যে চালু রয়েছে ৭টি। এরমধ্যে ঢাকাগামী যানবাহন থেকে দুটি বুথের মাধ্যমে টোল নেওয়া হচ্ছে। আর ঢাকা থেকে আসা গাড়ির টোল আদায় করা হচ্ছে পাঁচটি বুথে। ভোর থেকেই গাড়ির টোলপ্লাজায় ব্যাপক চাপ রয়েছে। দুপুর পর্যন্ত ৩-৪ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

jagonews24

টোল প্লাজার ইনচার্জ ফারুক হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১২টার পর থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ভাঙ্গা ফ্লাইওভারমুখী পয়েন্টে তিনটি কাউন্টার ও বিপরীত দিকে পদ্মা সেতু অভিমুখী সড়কের একটি কাউন্টার দিয়ে টোল আদায় শুরু হয়।

যাত্রী ও চালকরা জানান, টোল আদায়ে ধীরগতির কারণে সেখানে রাতেই দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। ঘণ্টার পর ঘণ্টা টোল প্লাজার সামনের যানজটে আটকে থাকেন। সকাল নাগাদ যাত্রীরা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন এবং টোল আদায়কারীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। পরে যানবাহনের চাপের মুখে কাউন্টার বাড়ানো হয়।

jagonews24

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হামিদউদ্দিন জাগো নিউজকে বলেন, পদ্মা সেতু হয়ে বের হবার জন্য তিনটি ও সেতুতে ওঠার জন্য একটি কাউন্টার চালু করা হয়। এতে সেখানে প্রচণ্ড যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে, পরে টোলপ্লাজায় কাউন্টার বাড়ানো হয়।

এন কে বি নয়ন/আরএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]