টার্মিনালে বাসচাপায় হেলপার নিহত, স্বজনদের দাবি ‘হত্যা’

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক ভৈরব (কিশোরগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৭:২৯ পিএম, ০৯ আগস্ট ২০২২
নিহত হেলপার তায়েব

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে বাসের চাপায় তায়েব মিয়া (২২) নামে চলনবিল পরিবহনের এক সহকারী নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) সকাল সোয়া ৯টার দিকে পৌর টার্মিনালের ভেতরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এটি হত্যাকাণ্ড বলে দাবি স্বজনদের।

নিহত তায়েব ঢাকা-ভৈরব রুটের চলনবিল সার্ভিসের সহকারী ছিলেন। স্ত্রী ও এক সন্তান নিয়ে পৌর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আলীম সরকার বাড়িতে ভাড়া বাসায় থাকতেন। তিনি নেত্রকোনার বাসিন্দা।

টার্মিনাল সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, টার্মিনালের ভেতরে প্রবেশের সময় আরাকান পরিবহনের একটি বাস তায়েবকে পেছন দিক থেকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ওই বাসটির চালক ছিলেন জামান মিয়া (৩০) নামের এক যুবক। ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছেন। তবে জামানের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই বলে দাবি সেখানকার অনেক পরিবহন শ্রমিকের।

চলনবিল পরিবহনের সহকারী ও তায়েবের সহকর্মী শাকিল মিয়া জানান, সকাল ৯টার দিকে দুজন বাসস্ট্যান্ডের একটি রেস্তোরাঁয় নাস্তা করেছেন এক সঙ্গে। রেস্তোরাঁ থেকে বের হয়ে তায়েব টার্মিনালের ভেতরে ঢোকারমুখে বাসটি তাকে চাপা দেয়। খবরটি শুনে শাকিল দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন তায়েব মারা গেছেন।

নিহত তায়েবের মামা কাজল মিয়া অভিযোগ করে বলেন, ‘তায়েব ও চালক জামান মাদকাসক্ত। মাদক নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ ছিল। এর জেরেই জামান তায়েবকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।’

কাজল মিয়ার দাবি, ‘টার্মিনালের যেখানে ঘটনাটি ঘটেছে সেখানে এমন দুর্ঘটনা ঘটার কথা নয়। ইচ্ছাকৃতভাবে পেছন থেকে চাপা দিয়ে ভাগিনাকে হত্যা করেছে জামান। আমি এর বিচার চাই।’

ভৈরব হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনির হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়েই পুলিশে গিয়ে মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। সুরতহাল রিপোর্টে মাথায় আঘাত পেয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। বর্তমানে মরদেহটি পৌর বাস টার্মিনালের সাধারণ সম্পাদক হানিফ মিয়ার জিম্মায় রাখা হয়েছে। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

এসজে/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।