দুই গোলে প্রীতি ম্যাচ হারলো ব্যারিস্টার সুমনের একাডেমি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:১২ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

দেশের বিভিন্ন জেলায় নিজের দল নিয়ে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ আয়োজন করছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কিশোরগঞ্জ স্টেডিয়ামে স্থানীয় ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বনাম ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমির মধ্যে আয়োজন করা হয় প্রীতি ফুটবল ম্যাচ।

বিকেল ৪টায় জেলা ক্রীড়া সংস্থা স্টেডিয়ামে ব্যারিস্টার সুমন ফুটবল একাডেমির মুখোমুখি হয় ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ফুটবল দল। এতে দুই গোলের ব্যবধানে জয় পায় ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ফুটবল দল। খেলায় অংশ নেন ব্যারিস্টার সুমনও।

দুই গোলে প্রীতি ম্যাচ হারলো ব্যারিস্টার সুমনের একাডেমি

এর আগে ফুটবল ম্যাচটি দেখতে লাখো মানুষের সমাবেশ ঘটে। স্টেডিয়ামের গ্যালারি কানায় কানায় ভরে যায় দর্শকে। অনেক দর্শককে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে না পেরে বাইরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়।

ব্যারিস্টার সুমন বলেন, কিশোরগঞ্জ হচ্ছে মহামান্য রাষ্ট্রপতির এলাকা। তিনি এখান থেকে বার বার জিতে এমপি হয়েছেন। এখন দেশের রাষ্ট্রপতি। তাকে হারানো যায় না। তাই আমি এখানে জিততে আসেনি। হারতে এসেছি।

তিনি আরও বলেন, ফুটবল গ্রামবাংলার জনপ্রিয় খেলা। মানুষকে নির্মল আনন্দ দিতেই আমার এ উদ্যোগ।

দুই গোলে প্রীতি ম্যাচ হারলো ব্যারিস্টার সুমনের একাডেমি

প্রীতি ফুটবল ম্যাচে উপস্থিত থেকে খেলা উপভোগ করেন ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. প্রিয় ব্রত পাল, গুরুদয়াল কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল প্রফেসর মো. আরজ আলী, ঈশা খাঁ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার রিয়াদ আহম্মেদ তুষার, কিশোরগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দাউদ প্রমুখ।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সুমন দীর্ঘদিন ধরে দেশের পিছিয়ে পড়া ফুটবল উন্নয়নে কাজ করছেন। দেশের বিভিন্ন স্থানে নিজের ফুটবল টিম নিয়ে প্রীতি ম্যাচ খেলছেন।

এর আগে শুক্রবার জেলার তাড়াইলে প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করেন ব্যারিস্টার সুমন।

নূর মোহাম্মদ/এএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।