কালীগঞ্জে যুবকের ৮ টুকরা মরদেহ উদ্ধার, মূলহোতা গ্রেফতার

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি কালীগঞ্জে (গাজীপুর)
প্রকাশিত: ০৯:১৮ এএম, ০৩ অক্টোবর ২০২২

গাজীপুরের কালীগঞ্জে নিখোঁজের তিন দিন পর সবুজ বার্নাড ঘোষাল (৩৫) নামে যুবকের আট টুকরো মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় শাহিন (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই)।

সবুজ কালীগঞ্জের পানজোড়া এলাকার অমূল্য বার্নাড ঘোষালের ছেলে। তিনি পানজোড়া এলাকার পূর্বাচল অ্যাপারেলসে কোয়ালিটি সেকশনে কাজ করতেন। গ্রেফতার শাহিনুর সাতক্ষীরার তালা উপজেলার বালিয়া এলাকায় বাসিন্দা।

রোববার (২ অক্টোবর) সাতক্ষীরা থেকে শাহিনুরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার জবানবন্দি অনুযায়ী ওইদিন সন্ধ্যায় কালীগঞ্জের নাগরী এলাকায় তার ভাড়াবাড়ির ঘর থেকে নিহতের রক্তমাখা জামা-কাপড় ও হত্যায় ব্যবহৃত আলামত জব্দ করা হয়েছে। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকসুদ রহমান।

পিবিআই পুলিশ সুপার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শাহীন হত্যার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়া হত্যায় ব্যবহৃত বেশকিছু আলামত জব্দ করা হয়েছে। বিস্তারিত পরে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হবে বলেও জানান তিনি।

সবুজ গত ২৮ সেপ্টেম্বর সকালে কর্মস্থল পূর্বাচল অ্যাপারেলস লিমিটেডের ফ্যাক্টরির উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। রাতে বাড়ি না ফেরায় স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেন। একপর্যায়ে তার সন্ধান না পেয়ে বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন নিহতের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী। পরে শনিবার (১ অক্টোবর) সকালে পূর্বাচল অ্যাপারেলসের দক্ষিণ পাশে একটি ডোবায় এক যুবকের মরদেহের কোমরের নিচের অংশ এবং এর অদূরে উত্তর দিকের একটি জঙ্গলে দুই হাত পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেন এলাকাবাসী।রোববার (২ অক্টোবর) বাকি অংশসহ মরদেহের আট টুকরো উদ্ধার করা হয়।

আব্দুর রহমান আরমান/এমএএইচ/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।