দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়লো স্কুলছাত্রের চায়ের দোকান

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৫:৪০ পিএম, ০৩ অক্টোবর ২০২২

লক্ষ্মীপুরে দুর্বৃত্তের আগুনে মো. নাহিদ আলম নামের এক শিক্ষার্থীর চায়ের দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। সোমবার (৩ অক্টোবর) ভোরে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের মিয়ার বেড়ী বাজারে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নাহিদের দাবি, জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিবেশী নাছির, সেলিম ও আজাদ তার দোকানে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন। এতে তার দেড় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

নাহিদ লক্ষ্মীপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ও পশ্চিম চরমনসা গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, লেখাপড়ার পাশাপাশি বাড়ির সামনে একটি চায়ের দোকান দিয়েছিল স্কুলছাত্র নাহিদ। সে যখন বিদ্যালয়ে যেতো তখন তার বৃদ্ধ বাবা দোকানে বসতেন। সোমবার ভোরের দিকে কে বা কারা দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয়। আগুন নেভানোর আগেই মালামালসহ পুরো দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

অভিযোগ অস্বীকার করে নাছির ও সেলিম বলেন, জমির বিষয়টি আদালত ও থানায় মীমাংসা হবে। দোকান পুড়িয়ে আমরা নাহিদের কেন ক্ষতি করবো? পাশে আমাদের দোকানও রয়েছে। আগুন ছড়িয়ে গিয়ে আমাদের দোকানেও লাগতে পারতো। অন্যদের সঙ্গে নাহিদের দোকানের আগুন নেভাতে তারাও সহযোগিতা করেছেন বলে দাবি করেন।

ভবানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মিয়ার বেড়ী বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাইফুল হাসান রনি বলেন, ঘটনাটি রহস্যজনক। আইনগত সহায়তা নিতে নাহিদকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোস্তফা কামাল বলেন, ঘটনাটি কেউ আমাদের জানাননি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কাজল কায়েস/এসআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।