মিয়ানমার সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণ, রোহিঙ্গার পা বিচ্ছিন্ন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বান্দরবান
প্রকাশিত: ০৮:৫০ এএম, ০৫ অক্টোবর ২০২২

চোরাই পথে গরু আনতে গিয়ে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে পুঁতে রাখা স্থলমাইন বিস্ফোরণে আব্দুল কাদের (৫২) নামের এক রোহিঙ্গার একটি পা বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের চাকডালা সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে এ ঘটনা ঘটে। আহত আব্দুল কাদের (৫২) ঘুমধুমের ছনখোলা ছেরাকুল এলাকায় বসবাসকারী রোহিঙ্গা নাগরিক মীর আহমদের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, সীমান্তের কাঁটাতারের ওপারে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চোরাইপথে গরু আনতে যান কাদের। এ সময় পুঁতে রাখা স্থলমাইন বিস্ফোরণে আব্দুল কাদেরের একটি পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম জাহাঙ্গীর আজিজ জাগো নিউজকে বলেন, সীমান্তের ওপারে স্থলমাইন বিস্ফোরণে আহত এক রোহিঙ্গাকে কক্সবাজার হাসপাতালে নিয়ে গেছে বলে শুনেছি। তবে বিস্তারিত জানতে পারিনি।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মো. তারিকুল ইসলাম বলেন, আহত রোগীর ডান পায়ের মাংসপেশি উড়ে গেছে। কিছু হাড় রয়েছে, তাও রক্ষা করা যাবে না। রোগীর অবস্থায় খুবই খারাপ। কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার মতো না। আপাতত প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার করা হবে।

নয়ন চক্রবর্তী/এসজে/জেআইএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।