শিক্ষার্থীরা পড়ে গিয়ে ধানক্ষেত নষ্ট হওয়ায় মার খেলেন ৩ শিক্ষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১৫ নভেম্বর ২০২২

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পশ্চিম চরমনসা গ্রামের মা মনি আইডিয়াল স্কুলের ভেতর ঢুকে হামলা চালিয়ে তিন শিক্ষককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় অফিস কক্ষের আসবাবপত্র তছতছ করা হয়। পরে ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে ওই স্কুল থেকে শিক্ষকদের উদ্ধার করে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় প্রভাবশালী নুর নবী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে এ হামলার অভিযোগ উঠেছে।

আহত শিক্ষক শাহজাদা বেগম, মেয়ে নুসরাত সুলতানা মিশু ও ছেলে মো. আজিমকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। তারা ওই স্কুলের শিক্ষক।

jagonews24

পুলিশ ও ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, শিক্ষার্থীরা সকালে স্কুলমাঠে খেলাধুলা করছিল। এ সময় পাশের ক্ষেতে কয়েকজন শিক্ষার্থী পড়ে যায়। এতে ধানগাছের কিছু ক্ষতি হয়। এ নিয়ে ক্ষেতের মালিক নুর নবীর স্ত্রী খালেদা বেগম স্কুলে গিয়ে শিক্ষক শাহজাদা বেগমের সঙ্গে তর্ক করেন। খবর পেয়ে নুর নবী, তার ছেলে রিপন ও রিয়াজ এসে স্কুলের অফিস কক্ষে হামলা চালান। বাধা দিলে শিক্ষক শাহজাদা বেগম, মেয়ে নুসরাত সুলতানা মিশু ও ছেলে মো. আজিমকে মারধর করা হয়।

মারধরে শিক্ষক শাহজাদার ঠোঁট ফেটে যায়। পরে জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল করলে পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে।

jagonews24

শিক্ষক শাহজাদা বেগম জানান, ২০১৮ সালে এলাকার ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের নিয়ে তিনি স্কুলটির কার্যক্রম শুরু করেন। এরপর থেকেই একটি চক্র এটি বন্ধের জন্য পাঁয়তারা করছে। তুচ্ছ ঘটনায় নুর নবী তার ছেলেদের নিয়ে স্কুলে হামলা চালান। বাধা দিতে গেলে তারা এলোপাতাড়ি মারধর করেন।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে নুর নবী বলেন, শিক্ষার্থীরা ছাড়াও শিক্ষক শাহজাদার কয়েকটি রাজহাঁস ধানক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি করেছে। এ নিয়ে তার স্ত্রীর সঙ্গে ওই শিক্ষকের হাতাহাতি হয়। কেউ তাদের মারধর করেননি।

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোজাম্মেল হোসেন বলেন, আহত শিক্ষকদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসা নিয়ে থানায় অভিযোগ দিতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

কাজল কায়েস/এসআর/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।