কুড়িগ্রামে নকল সীমানা পিলারসহ নারী গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ২৭ নভেম্বর ২০২২
নকল পিলারসহ গ্রেফতার বেলী বেগম

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় নকল সীমানা পিলারসহ বেলী বেগম নামের এক নারী প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (২৭ নভেম্বর) দুপরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়

গ্রেফতার বেলী বেগম উপজেলার কেদার ইউনিয়নের গোলের হাট এলাকার নজরুল ইসলাম ওরফে চেংটু মিয়ার স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, বেলী বেগম তার সহযোগী আপেল মিয়াসহ আরও চার-পাঁচজন মিলে নকল সীমানা পিলারে ম্যাগনেট জাতীয় মূল্যবান বস্তু থাকার প্রলোভন দিয়ে টাকা পয়সা হাতিয়ে নিতেন। ওই পিলার বিক্রির কথা বলে চট্রগ্রামের মিরসরাইয়ের নন্দী গ্রামের আবুল খায়ের ছেলে আলী আশরাফ নয়নকে ডেকে আনেন বেলী।

শনিবার সন্ধ্যায় বলদিয়া ইউনিয়নের শতিপুরি গ্রামে বেলী বেগমের বাবাবাড়িতে নয়নকে নিয়ে যান। ওই বাড়িতে নকল পিলারটি দেখানোর পর নয়নের সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোন, নগদ ২ হাজার টাকা ও কাপড়ের ব্যাগ ছিনিয়ে নেন কয়েকজন। এ সময় আরও টাকার জন্য তারা নয়নকে মারধোর করতে থাকেন। টের পেয়ে গ্রামবাসী এগিয়ে আসলে সবাই পালিয়ে গেলেও নয়নকে আটকের পুলিশে দেন স্থানীয়রা।

অভিযান চালিয়ে পুলিশ বেলী বেগমকে আটক করে। এ সময় নকল সীমানা পিলার, পিলার পরীক্ষার কাজে ব্যবহৃত কয়েক প্রকার ইলেকট্রনিক যন্ত্র, কয়েক প্রকার কস্টেপ, একটি ছুরি, একটি প্লাস্টিকের খেলনা পিস্তল, তিনটি ব্যাগসহ প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত বেশ কিছু উপকরণ জব্দ করা হয়। রাতেই নয়ন বাদী হয়ে বেলী বেগম ও আপেল মিয়াসহ আরও কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন।

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মর্তূজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ফজলুল করিম ফারাজী/এসজে/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।