ফেনীর ২৫ ফুটের এলইডি স্ক্রিন যেন বিশ্বকাপের মাঠ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ১২:৫৪ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২২

ফেনীর ২৫ ফুটের এলইডি স্ক্রিন যেন বিশ্বকাপের মাঠ। আর সড়কসহ আশপাশ যেন গ্যালারি। বিশেষ করে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা খেলা হলে এ গ্যালারিতে ভিড় করে ৩৫-৪০ হাজার ফুটবলপ্রেমী। তখন বন্ধ হয়ে যায় ফেনী কলেজ রোডের যানবাহন চলাচল।

ব্রাজিলের স্বস্তির জয়ের পর ফেনীতে মধ্যরাতে আনন্দ-উল্লাসে মেতে ওঠেন ভক্তরা। মিছিলে মিছিলে মুখরিত হয়ে ওঠে চারিদিক। ফেনী পুরাতন কারাগারের সামনে ২৫ ফুটের এলইডি বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করা হয়। এক সঙ্গে বসে ৩০ হাজার ফুটবলপ্রেমী প্রিয় দলের খেলা উপভোগ করেন। পুরো রাস্তা ও আশপাশের এলাকা পরিণত হয় গ্যালারীতে।

jagonews24

খেলা দেখার জন্য ভক্তদের প্রায় দুই ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে। ফেনী পাইলট স্কুলের গেট থেকে শুরু করে পৌরসভা, পেট্রোল পাম্প, ফাইভ স্টার, স্মৃতিস্তম্ভের প্রাঙ্গণের সামনের সড়ক লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে।

ক্যাসমিরোর শেষ মুহূর্তের গোলে ব্রাজিল স্বস্তির জয়লাভ করে। জমাট রক্ষণে ব্রাজিলকে প্রায় রুখে দিতে যাচ্ছিল সুইজারল্যান্ড। ৮০ মিনিট পর্যন্ত রাফিনিয়া-ভিনিয়াসদের ঠেকিয়ে রেখে পয়েন্ট অর্জনের স্বপ্ন দেখছিল সুইডিশরা। তবে শেষ রক্ষা হলো না। শেষ মুহূর্তে ক্যাসমেরিরোর দুর্দান্ত হাফ ভলির গোলে শাকিরিদের হৃদয় ভাঙে। ১-০ ব্যবধানে স্বস্তির জয় তুলে নেয় ব্রাজিল। দুই ম্যাচ থেকে পূর্ণ ছয় পয়েন্ট তুলে শেষ ষোলোর টিকেট কেটে ফেলেছে তিতের দল।

পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের খেলা দেখতে রাতে ভিড় জমান সমর্থকরা। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ে উল্লাসে মেতে ওঠেন তারা। বাদ্যের তাল আর শ্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে চারিদিক।

jagonews24

ফেনী শহরে বড় পর্দায় খেলা দেখতে হাজির হন ফুটবলপ্রেমীরা। জয়ে বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস ছিল সমর্থকদের। খেলা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দলবেঁধে উল্লাসে মেতে ওঠেন ভক্তরা। ব্রাজিল সমর্থকরা জয় উদযাপনে বের করেন খণ্ড খণ্ড মিছিল।

ব্রাজিল ভক্ত তোফায়েল আহম্মদ নিলয় বলেন, বড় পর্দায় খেলা দেখতে এসেছিলাম। প্রিয় দল জয় পেয়েছে। খুব ভালো লাগছে।

ব্রাজিলের ভক্ত মঙ্গলকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদল বলেন, এই ম্যাচেও জিতেছে, সামনের খেলাগুলোতে ব্রাজিল অনেক ভালো করবে।

আবদুল্লাহ আল-মামুন/জেএস/জিকেএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।