৮০ হাজার টাকায় আশ্রয়ণের ঘরে অন্যকে থাকতে দিয়েছেন উপকারভোগী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২

মাদারীপুরের রাজৈরে আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘর বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে বরাদ্দপ্রাপ্ত মালিক আছমা বেগম ও তার স্বামী আকবর মিয়ার বিরুদ্ধে।

তারা রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের বৌলগ্রাম এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা। তাদের একমাত্র ছেলে ইতালি প্রবাসী বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

তবে ক্রেতা রোকেয়া বেগমের দাবি, ৮০ হাজার টাকার বিনিময়ে তাকে ঘরে থাকতে দেওয়া হয়েছে, তিনি ঘরটি কেনেননি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের অক্টোবর মাসে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় রাজৈর উপজেলার স্লুইসগেট এলাকার নদীর পাড়ে ১৯টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে একটি ঘর পান উপজেলার বৌলগ্রামের ইতালি প্রবাসী আরমান মিয়ার (২০) মা আছমা বেগম ও বাবা আকবর মিয়া।

পরে ৮০ হাজার টাকার বিনিময়ে একই এলাকার মৃত তাজেল মোল্লার স্ত্রী রোকেয়া বেগমের (৭৫) কাছে ওই ঘর বিক্রি করে দেন তারা। রোকেয়ার দুই ছেলেও ইতালি প্রবাসী বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রোকেয়া বেগম বলেন, এই ঘরে থাকার জন্য আকবরকে আমি ৮০ হাজার টাকা দিয়েছি কিন্তু কিনিনি। আমার বাড়ির পাশেই তার বাড়ি।

আর ঘর বিক্রির বিষয়টি অস্বীকার করে অভিযুক্ত আকবর মিয়া বলেন, টাকা নেওয়ার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। আমার ভাই জানে। ঘটনা শুনে আমি তাদের ঘর থেকে নেমে যেতে বলেছি

এ বিষয়ে রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আনিসুজ্জামান বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখবো। যদি সত্য হয় তাহলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকারের বন্দোবস্ত দেওয়া কোনো ঘর বা জায়গা কেউ বিক্রি করতে পারবেন না। তবে ব্যবহার করতে পারবেন।

এমআরআর/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।