হাতিলের ভার্চুয়াল শো-রুম

মেসবাহুল হক
মেসবাহুল হক মেসবাহুল হক , নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০১৮

শীতের মধ্যেও বেশ সরগরম বাণিজ্য মেলা প্রাঙ্গণ। হরেকরকম প্যাভিলিয়নে চলছে নানা বাজার-সদাই। ৫৮৯টি প্যাভিলিয়নের মধ্যে একটি কিন্তু সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। প্যাভিলিয়নটিতে নেই কোনো পণ্য তবে আছে ক্রেতা-দর্শানার্থী।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্যাভিলিয়নে দায়িত্বরত কর্মকর্তারা বলেন, এটি হচ্ছে দেশের পূর্ণাঙ্গ ভার্চুয়াল শো-রুম ‘হাতিল ভি’। দেশের অন্যতম ফার্নিচার প্রতিষ্ঠান হাতিলের মেলা উপলক্ষে ব্যতিক্রম এ আয়োজন। একটি মাত্র ঘরে বসে হাতিলের সব ধরনের ফার্নিচার দেখার সুযোগ পাচ্ছেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে হাতিলের কমিউনিকেশন পার্টনার ডিজাইন অ্যান্ড টেকনোলজি সেন্টার লিমিটেডের সহকারী পরিচালক তৌহিদুল ইসলাম বলেন, এবারের মেলায় এটাই সবচেয়ে ব্যতিক্রম ঘটনা। হাতিলের প্রিমিয়ার মিনি প্যাভিলিয়ন ১-এ চলছে দেশের প্রথম ভার্চুয়াল শো-রুমের শো। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এ শো দেখার সুযোগ রয়েছে।

কী দেখানো হয় এ শো-তে? প্রশ্ন রাখা হলে তিনি বলেন, আসলে আমরা অভ্যস্ত একটা বাস্তব শো-রুমে ঘুরেফিরে কেনাকাটা করতে। হাতিল যত ফার্নিচার উৎপাদন করে তার সব শো-রুমে কখনো তুলতে পারে না। ফলে সব ফার্নিচার ক্রেতা-দর্শনার্থীদের দেখার সুযোগও হয় না। এ সংকটের সমাধান হচ্ছে ‘হাতিল ভি’। এর মাধ্যমে একটি মাত্র ঘরে বসে প্রযুক্তির মাধ্যমে হাতিলের সব ধরনের ফার্নিচার দেখে পছন্দ মতো পণ্যটি কেনা যাবে।

hatil

‘এখানে দৃশ্য, শব্দ ও প্রযুক্তির সাহায্যে আপনাকে এমন একটা অনুভূতি দেয় হবে, মনে হবে আপনি ঘুরছেন হাতিলের বিশাল এক শো-রুমে। যেখানে বাস্তব রুমের মতো সাজানো রয়েছে সব ফার্নিচার।’

শুধু তা-ই না, হাতিল ভি’তে ফার্নিচার পছন্দ করে এর ফেব্রিক, উড, কালারও সঙ্গে সঙ্গে বদলে দেখার সুযোগ রয়েছে। আবার একাধিকবার ফার্নিচার পাশাপাশি সাজিয়ে তুলনা করে দেখারও সুযোগ রয়েছে। এমনটা কিন্তু বাস্তবের কোনো শো-রুমে কখনো সম্ভব নয়- বলেন তিনি।

হাতিল ভি’র মাধ্যমে কেনাকাটার প্রতিটি ধাপ অনায়াসে সম্পন্ন সম্ভব। এ কারণে দেশের প্রথম ও পূর্ণাঙ্গ ভার্চুয়াল শো-রুম বলা হচ্ছে এটি। যেখানে কোনো ফার্নিচার না থেকেও আছে পুরো কালেকশন!

হাতিল কর্তৃপক্ষ মনে করে এ ভার্চুয়াল শো-রুম একদিন নির্ঘাত বদলে দেবে ক্রেতাদের কেনাকাটার সব অতীত অভিজ্ঞতা। তাই ঘুরে আসুন হাতিল ভি প্যাভিলিয়ন থেকে।

শীত তাড়াতে প্যাভিলিয়নে রয়েছে গরম কফির আমন্ত্রণ। কফিতে চুমুক দিতে দিতে ঘুরে আসতে পারবেন ফার্নিচারের ভার্চুয়াল জগৎ থেকে।

এমইউএইচ/এমএআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]