জমেছে অনলাইনে কেনাকাটা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৩ পিএম, ১৩ এপ্রিল ২০১৮

দুয়ারে কড়া নাড়ছে পহেলা বৈশাখ। উৎসবের এদিন নিজেকে রাঙাতে কেনাকাটায় মেতেছেন সৌখিন বাঙালিরা। বৈশাখ উপলক্ষে সাধারণ বাজারে চলছে রমরমা বেচাকেনা। তবে রাস্তায় যানজট, হুড়োহুড়ি, দৈনন্দিন ব্যস্ত জীবনে শপিংমলে গিয়ে কেনাকাটার পরিবর্তে এখন অনেকেই প্রয়োজনীয় পণ্য অনলাইনে সংগ্রহে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় জমছে অনলাইনে বৈশাখের কেনাকাটা।

তথ্যপ্রযুক্তির উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রসারিত হয়েছে অনলাইন কেনাকাটা। দৈনন্দিন কর্মব্যস্ততা ও যানজটের ভোগান্তি থেকে রেহাই পেতে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে দেশের অনলাইন বাজার। খুব অল্প সময়ের মধ্যে নিজের অর্ডার করা পণ্য ডেলিভারি পেয়ে ক্রেতারাও আগ্রহী হয়ে উঠছেন অনলাইন কেনাকাটায়।

বৈশাখের উৎসবকে সামনে রেখে শাড়ি-পাঞ্জাবি, অলংকার, সবকিছুতেই আরেকটু বাঙালি হওয়ার চেষ্টা সবার। নববর্ষ বরণে নিজেদের রাঙাতে উৎসবপ্রিয় বাঙালির অনেকে অনলাইনেই সেরে নিচ্ছেন বৈশাখী কেনাকাটা।

ক্রেতাদের আরও আকৃষ্ট করতে বৈশাখ উৎসব উপলক্ষে অনলাইন প্রতিষ্ঠানগুলোও নিয়েছে বিশেষ প্রস্তুতি, দিচ্ছে সর্বোচ্চ মূল্যছাড়ও। ফলে অন্য সময়ের চেয়ে বেড়েছে বিক্রি। অনলাইন কেনাকাটার জন্য প্রতিষ্ঠিত সব অনলাইন প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি ছোট-বড়, নামীদামি সব প্রতিষ্ঠানেই চলছে ব্যাপক কেনাবেচা।

অনলাইন কেনাকাটার প্রতিষ্ঠান ‘অথবা ডটকম’ এর সহকারী ব্র্যান্ড ম্যানেজার নির্ঝর কুমার কুন্ডু বলেন, বৈশাখকে সামনে রেখে আমাদের নানা অফার চলছে। যে কারণে আমরা ক্রেতাদের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি।

অথবা ডটকমে তাদের বৈশাখী অফারে দেখা গেছে, ছেলেদের টি-শার্ট, পাঞ্জাবি, মেয়েদের শাড়ি, থ্রি-পিসে এক্সক্লুসিভ সব কালেকশনসহ বিশেষ মূল্যছাড় দিচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন পণ্যে মূল্যছাড়সহ রয়েছে নানা অফার।

এদিকে বিভিন্ন অনলাইন শপে বৈশাখী বেচাকেনার খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অন্য স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে তাদের বেচাবিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। তবে তারা বলছেন, বৈশাখ উপলক্ষে তাদের ছোট-বড় বিভিন্ন অনলাইন শপে শাড়ি-পাঞ্জাবি আর থ্রি-পিসের চাহিদা সবচেয়ে বেশি।

একটি অনলাইন শপের স্বত্বাধিকারী শারমিন আক্তার বলেন, বৈশাখ উৎসবকে সামনে রেখে আমরা শাড়ি, থ্রি-পিস ও পাঞ্জাবিতে বিশেষ ছাড় দিচ্ছি। যেহেতু বৈশাখ আমাদের সবার একটা উৎসব তাই নিজেকে সাজিয়ে নিতে ক্রেতাদের আগ্রহ ছিল বেশ আগে থেকেই। অন্য সময়ের চেয়ে আমরা অনেক বেশি বিক্রি করেছি এবার। আমাদের মতো ছোট প্রতিষ্ঠানও মেয়েদের শাড়ি ও ছেলেদের পাঞ্জাবি ডেলিভারি দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

এবারের বৈশাখ উপলক্ষে অনলাইনেই কেনাকাটা করেছেন বেসরকারি একটি ব্যাংকের চাকুরিজীবী রেহেনা আক্তার অর্পা। তিনি বলেন, ব্যস্ততার কারণে এবারের বৈশাখের কেনাকাটা অনলাইনে সেরেছি। কারণ বর্তমানে অনেক অনলাইন শপ আছে। হাজারটার মধ্যে বেছে সবচেয়ে পছন্দেরটা কেনা যায়। আমি, আমার স্বামী এবং মেয়ের জন্য অনলাইন থেকেই পণ্য কিনেছি। আর এবার বেশিরভাগ অনলাইন শপেই ছিল বৈশাখী ছাড়। চাকরির জন্য ব্যস্ততা থাকে, যে কারণে ইচ্ছা থাকলেও মার্কেটে ঘুরে ঘুরে শপিং করতে পারি না। এসব কারণে ঝামেলাহীন অনলাইনে শপিং করেছি এবার। এছাড়া আস্তে আস্তে তাদের সার্ভিসও ভালো হচ্ছে, আছে হোম ডেলিভারিও।

এএস/ওআর/এমএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :