তিন কারণে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:০৯ পিএম, ১১ জুলাই ২০১৮

বাংলাদেশ এগিয়ে যাওয়ার পেছনে মূলত তিনটি প্রধান কারণ রয়েছে বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্ব, বাস্তবসম্মত নীতি কৌশল ও দেশ গঠনে প্রবাসীসহ সর্বসাধারণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ। আমি মনে করি, এই তিন কারণেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এজন্য আজ আমি চরম তৃপ্ত।

বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্টাডি ট্রাস্ট আয়োজিত ‘সিলেট উন্নয়ন প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় অর্থমন্ত্রী একথা বলেন। স্টাডি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান প্রফেসর এমিরেটাস ড. এ কে আবদুল মোমেনের সভাপতিত্বে এতে সিলেট অঞ্চলের কৃতী সন্তানরা বক্তব্য রাখেন।

মুহিত বলেন, আজ আমি চরম তৃপ্ত। ১০ বছর আগেও এতোটা তৃপ্ত ছিলাম না। গত ১০ বছরে দেশের অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে, আরও হবে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এটা ভাবলেই ভালো লাগে। এই তৃপ্তি নিয়েই এখন বিদায় নিতে পারবো। আগে নিলে এই তৃপ্তিটা থাকতো না।

তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ থেকে বাংলাদেশের মানুষ অনেক মেধাবী। সে শিক্ষিত হোক অর্ধশিক্ষিত হোক, তাকে কোনো কাজ একবার বুঝিয়ে দিলেই সে কাজ অনায়াসে তা করতে পারে।

পল্লী উন্নয়ন ও কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) চেয়ারম্যান ড. খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, দেশের সঙ্গে তালমিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সিলেট। বিদেশ থেকে প্রচুর অর্থ সিলেটে আসে সে টাকা যথাযথ ব্যবহার হয় না। বিনিয়োগ হয় না। ভোগ বিলাসে ব্যয় হয়।

তিনি আরও বলেন, সিলেট এক সময় শিক্ষায় অনেক অগ্রসর ছিল, পরে তা পিছিয়ে যায়। সেদিকে নজর দিতে হবে। হাওর, অবকাঠামো, মনু নদীর উন্নয়ন এবং শহরের বস্তির দিকে নজর দিতে হবে। তাদের উন্নয়ন করতে হবে।

ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, সিলেটে গত ১০ বছরে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। সিলেটের সঙ্গে সঙ্গে দেশও এগিয়ে যাচ্ছে। এটা ধারাবাহিক উন্নয়নের অংশ। তবে এই উন্নয়নকে আরও এগিয়ে নিতে হবে।

সম্প্রীতির বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দোপাধ্যায় বলেন, সিলেটে ৫০টির অধিক প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে, তাহলে সারা বাংলাদেশে কী পরিমাণ উন্নয়ন হয়েছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আর এর এটা সম্ভব হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য। কারণ সিলেট বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর খুব পছন্দের জায়গা।

এমএ/জেএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :