সপ্তাহজুড়ে ব্লকে ৫৯ কোটি টাকার লেনদেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:২৩ পিএম, ২০ জুলাই ২০১৮

গত সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসে (১৫ থেকে ১৯ জুলাই) ৩৬টি প্রতিষ্ঠান ব্লক মার্কেটে লেনদেনে অংশ নেয়। একটি মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং বাকি ৩৫টি কোম্পানি। এসব প্রতিষ্ঠানের ৫৯ কোটি ১২ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ৫৮ কোটি ৮৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা বা ৫০ শতাংশ কম। আগের সপ্তাহে ব্লক মার্কেটে ১১৭ কোটি ৯৮ লাখ ৪০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছিল।

গত সপ্তাহে ব্লক মার্কেটে লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- রহিম টেক্সটাইল, সায়হাম টেক্সটাইল, এইচআর টেক্সটাইল, ইসলামি ইন্স্যুরেন্স, লিগ্যাছি ফুটওয়্যার, ন্যাশনাল পলিমার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, স্টাইল ক্রাফট, ব্যাংক এশিয়া, গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মা, এপেক্স ফুডস, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, কুইনসাউথ টেক্সটাইল, সাউথইস্ট ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, সিঙ্গারবিডি, মেট্রো স্পিনিং, ইবনে সিনা, আইটি কনসালটেন্টস, ইস্টার্ন ব্যাংক, আমান ফিড, রিজেন্ট টেক্সটাইল, মিরাকল, ইউনাইটেড পাওয়ার, সিটি ব্যাংক, কেডিএস এক্সেসরিজ, খুলনা পাওয়ার, নাভানা সিএনজি, সালভো কেমিক্যাল, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স, মালেক স্পিনিং, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, বিডি কম, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ড।

গত সপ্তাহে ব্লক মার্কেটে সবচেয়ে বেশি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে গ্রামীণ ফোনের। প্রতিষ্ঠানটির ৮ কোটি ২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেন হওয়া শেয়ারের সংখ্যা ২ লাখ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭ কোটি ৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে রহিম টেক্সটাইলের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৬ কোটি ১ লাখ ৭০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে স্কয়ার ফার্মার।

এছাড়া কেডিএস এক্সেসরিজের ৪ কোটি ৭৬ লাখ ৯০ হাজার টাকার, লিগ্যাছি ফুটওয়্যারের ৪ কোটি ৭৪ লাখ ৪০ হাজার টাকার, রূপালী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৪ কোটি ৪১ লাখ টাকার, এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ডের ৩ কোটি ৫৪ লাখ ৬০ হাজার টাকার, ইবনে সিনার ২ কোটি ৮৬ লাখ ৭০ হাজার টাকার, এইচআর টেক্সটাইলের ২ কোটি ৪৩ লাখ ৭০ হাজার টাকার, সাউথইস্ট ব্যাংকের ২ কোটি ১০ লাখ টাকার, ব্যাংক এশিয়ার ১ কোটি ৯৮ লাখ ৬০ হাজার টাকার, ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ১ কোটি ৭০ হাজার টাকার এবং ন্যাশনাল পলিমারের ১ কোটি ১০ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে।

১ কোটি টাকার নিচে এবং ৫০ লাখ টাকার ওপরে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে- বিডি কমের ৯১ লাখ ৪০ হাজার টাকার, সালভো কেমিক্যালের ৯০ লাখ ৩০ হাজার টাকার, এপেক্স ফুডসের ৮০ লাখ ৪০ হাজার টাকার, সিটি ব্যাংকের ৭৮ লাখ ২০ হাজার টাকার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের ৭৮ লাখ টাকার, উত্তরা ব্যাংকের ৭০ লাখ ৫০ হাজার টাকার, অ্যাডভেন্ট ফার্মার ৫৮ লাখ ৭০ হাজার টাকার, খুলনা পাওয়ারের ৫৮ লাখ ১০ হাজার টাকার এবং নাভানা সিএনজির ৫১ লাখ ৩০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

আর ৫০ লাখ টাকার নিচে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে- স্টাইল ক্রাফটের ৩৫ লাখ ৭০ হাজার টাকার, সিঙ্গারবিডির ৩৫ লাখ ৩০ হাজার টাকার, কুইনসাউথ টেক্সটাইলের ৩২ লাখ ৫০ হাজার টাকার, রিজেন্ট টেক্সটাইলের ২৫ লাখ ৮০ হাজার টাকার, আমান ফিডের ২৫ লাখ টাকার, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ১৯ লাখ ৩০ হাজার টাকার, সায়হাম টেক্সটাইলের ১৪ লাখ ২০ হাজার টাকার, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের ৫ লাখ ৪০ হাজার টাকার, মিরাকলের ১০ লাখ ৯০ হাজার টাকার, মালেক স্পিনিংয়ের ১০ লাখ ৩০ হাজার টাকার, ইউনাইটেড পাওয়ারের ৯ লাখ ৮০ হাজার টাকার, আইটি কনসালটেন্টসের ৯ লাখ ৮০ হাজার টাকার, ইস্টার্ন ব্যাংকের ৯ লাখ ৭০ হাজার টাকার এবং মেট্রো স্পিনিংয়ের ৫ লাখ ২০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

এমএএস/এমআরএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :