জায়গা বুঝে ক্রেতার পকেট কাটছে ‘আড়ং’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪৪ এএম, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

রাজিব হায়দার নামের এক ক্রেতা রাজধানীর মগবাজারের আড়ংয়ের বিক্রয় কেন্দ্র থেকে একটি থ্রি-পিস কেনেন, যার দাম নিয়েছে আড়াই হাজার টাকা। একই পণ্য বসুন্ধরা সিটির আড়ংয়ের বিক্রয় কেন্দ্র থেকে কিনতে তার লেগেছে ৩ হাজার টাকা। মাত্র পাঁচ মিনিটের দূরত্বে আড়ং দাম বেশি নিয়েছে ৫০০ টাকা। এভাবেই জায়গা বুঝে ক্রেতার পকেট কাটছে খ্যাতিনামা দেশীয় পণ্য উৎপাদনকারী এই প্রতিষ্ঠানটি।

এমই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। অভিযােগ শুনানি করেন অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদাউস।

অধিদফতরের উপপরিচালক (উপসচিব) মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘আড়ং একটি নামিদামি প্রতিষ্ঠান তাদের কাছে ক্রেতারা এভাবে প্রতারিত হবে এ আমরা প্রত্যাশা করি না। তারা ক্রেতার সঙ্গে প্রতারণা করেছে।’

তবে আড়ং কতৃপক্ষ শুনানিতে বলেছেন, তাদের ম্যানেজমেন্টর ভুলের কারণে মগবাজারে দাম কম রাখা হয়েছে। থ্রি-পিসটি মূল্য নির্ধারণের সময় ওড়নার দাম ধরা হয়নি। তাই আড়াই হাজার টাকা ভুলে নির্ধারণ করা হয়েছে। যার প্রকৃত মূল্য তিন হাজার টাকা। প্রতিষ্ঠানটি তাদের ভুল স্বীকার করে। পরে ক্রেতার সঙ্গে সমঝোতা হওয়ায় অধিদফতর আড়ংকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করে। একই সঙ্গে ভবিষতে এ ধরণের অপরাধ যেন না করে সেজন্য প্রতিষ্ঠানটিকে সতর্ক করেছে অধিদফতর।

এসআই/এমবিআর/জেআইএম