আগ্রহ হারানোর শীর্ষে ন্যাশনাল হাউজিং

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:৪২ এএম, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

গত সপ্তাহে পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় শীর্ষস্থান দখল করেছে আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্স। বিনিয়োগকারীরা কোম্পানিটির শেয়ার কিনতে আগ্রহী না হওয়ায় সপ্তাহজুড়েই দাম কমেছে, লেনদেন হয়েছে মাত্র ৭৯ কোটি ৫২ লাখ টাকার শেয়ার। ফলে প্রতি কার্যদিবসে গড়ে ১৫ লাখ ৯০ হাজার টাকার শেয়ার হাতবদল হয়েছে।

এতে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের দামে বড় ধরনের পতন হয়েছে। প্রতিটি শেয়ারের দাম কমেছে ১৩ টাকা ৫০ পয়সা (১৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ)। ফলে গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ৬৭ টাকা ২০ পয়সা, যা তার আগের সপ্তাহ শেষে ছিল ৮০ টাকা ৭০ পয়সা।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের মোট শেয়ারের ৬৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। বাকি শেয়ারের মধ্যে ১০ দশমিক ১২ শতাংশ রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে। আর প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে আছে ১৭ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ এবং সরকারের কাছে ৯ দশমিক ৩৪ শতাংশ শেয়ার।

এদিকে শেষ সপ্তাহে ন্যাশনাল হাউজিং ফাইন্যান্সের পরেই বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর তালিকায় শীর্ষে ছিল ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন। সপ্তাহজুড়ে এই কোম্পানিটির শেয়ারের দাম কমেছে ১৫ দশমিক ৮২ শতাংশ। এর পরে রয়েছে আইএফআইএল ইসলামিক মিউচ্যুয়াল ফান্ড-১। সপ্তাহজুড়ে এই মিউচ্যুয়াল ফান্ডটির ইউনিটের দাম কমেছে ১২ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

এছাড়া শেষ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ হারানোর শীর্ষ ১০ কোম্পানির তালিকায় থাকা বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলসের ১১ দশমিক ২১ শতাংশ, মিথুন নিটিং অ্যান্ড ডাইংয়ের ১০ দশমিক ৮৬ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংকের ১০ দশমিক ৭৪ শতাংশ, মাইডস ফাইন্যান্সের ১০ দশমিক ২৬ শতাংশ, ‘রিলায়েন্স ওয়ান’ দ্য ফার্স্ট স্কিম অব রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের ১০ দশমিক ১৯ শতাংশ, প্রাইম ব্যাংক ফার্স্ট আইসিবি এএমসিএল মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯ দশমিক ৮৬ শতাংশ এবং আইসিবি এএমসিএল থার্ড এনআরবি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯ দশমিক ৮৪ শতাংশ দাম কমেছে।

এমএএস/এমএমজেড/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]