বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষে ইউনিলিভার কনজুমার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

গত সপ্তাহজুড়ে দেশের শেয়ারবাজারে দাম বাড়ার ক্ষেত্রে দাপট দেখয়িছে বহুজাতিক কোম্পানি ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার লিমিটেড। গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন বা জিএসকে থেকে বদল হয়ে নতুন নাম ধারণ করা এই কোম্পানির শেয়ার বিনিয়োগকারীদের কাছে পছন্দের শীর্ষে ছিল। ফলে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) দাম বাড়ার শীর্ষ স্থানটি দখল করেছে হরলিকস, মালটোভা, গ্ল্যাক্সোজ-ডি, সেনসোডাইনের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার।

ক্রেতাদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসায় সপ্তাহজুড়ে ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ারের শেয়ার দাম বেড়েছে ২৭ দশমিক ৬২ শতাংশ। টাকার অঙ্কে বেড়েছে ৬৯৫ টাকা ৮০ পয়সা। সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস শেষে কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের দাম দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৭৪২ টাকা ৬০ পয়সায়। যা আগের সপ্তাহের শেষে ছিল ২ হাজার ৪৬ টাকা ৮০ পয়সা।

অপরদিকে সপ্তাহজুড়ে লেনদেন হয়েছে ১৭ কোটি ৬৫ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। আর প্রতি কার্যদিবসে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩ কোটি ৫৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা।

১৯৭৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন বাংলাদেশে কনজুমার হেলথ কেয়ার ও ফার্মাসিটিক্যালসের মাধ্যমে বেশ দাপটের সঙ্গে ব্যবসা করছিল। কিন্তু ফার্মাসিউটিক্যালস ইউনিটের লোকসান দেখিয়ে ২০১৮ সালে ওষুধ উৎপাদন কারখানা এবং ফার্মাসিউটিক্যাল বিজনেস ইউনিটের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় বহুজাতিক কোম্পানিটি।

এরপরই ইউনিলিভারের কাছে শেয়ার বিক্রির ঘোষণা আসে। এ সংক্রান্ত প্রথম বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় ২০১৮ সালের ৩ ডিসেম্বর। সে সময় ইউনিলিভার ও জিএসকের পক্ষ থেকে দুটি পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভারত, বাংলাদেশ ও এশিয়ার অন্য ২০টি দেশের বাজারে জিএসকের চলমান কনজুমার হেলথ ড্রিংকস ব্যবসা কিনে নিচ্ছে অ্যাংলো-ডাচ জায়ান্ট ইউনিলিভার।

প্রথমে সেটফার্স্টের কাছে থাকা জিএসকে বাংলাদেশের সব শেয়ার ইউনিলিভারের মূল কোম্পানি ইউনিলিভার এনভির কাছে বিক্রি করার কথা ছিল। কিন্তু চলতি বছরের ২২ মার্চ এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে ইউনিলিভারের মূল কোম্পানির পরিবর্তে এর সাবসিডিয়ারি ইউনিলিভার ওভারসিজ হোল্ডিংস বিভির কাছে সেটফার্স্টের সব শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর অংশ হিসেবে গত ২৮ জুন ডিএসইর ব্লক মার্কেটের মাধ্যমে জিএসকের শেয়ার কিনে নেয় ইউনিলিভার। ৯৮ লাখ ৭৫ হাজার ১৪৪টি শেয়ারের প্রতিটি কেনা হয় ২ হাজার ৪৬ টাকা ৩০ পয়সা করে। শেয়ার কিনে নেয়ার দু’দিনের মধ্যেই নতুন এমডি নিয়োগ দেয়া হয় প্রতিষ্ঠানটিতে। সেই সঙ্গে গ্লাক্সোস্মিথক্লাইন বা জিএসকে নাম বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির নতুন নাম দেয়া হয় ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার।

নাম বদল হলেও গত সপ্তাহের আগ পর্যন্ত শেয়ারবাজারে আগের নামেই কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হচ্ছিল। তবে গত ২৬ নভেম্বর থেকে নতুন নামে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন শুরু হয়েছে। নতুন নামে লেনদেন শুরু হতেই প্রতিষ্ঠানটি বিনিয়োগকারীদের পছন্দের শীর্ষ স্থান দখল করে নিল। সেই সঙ্গে আরেক বহুজাতিক কোম্পানি ম্যারিকো বাংলাদেশকে সরিয়ে শেয়ারবাজারের সর্বোচ্চ শেয়ারের দ্বিতীয় স্থান দখল করল।

এদিকে, ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ারের পরই গত সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের পছন্দের তালিকায় ছিল আমরা নেটওয়ার্ক। সপ্তাহজুড়ে এই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার দাম বেড়েছে ২২ দশমিক ৯৪ শতাংশ। এরপর রয়েছে পেনিনসুলা চিটাগাং। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার দাম বেড়েছে ২২ দশমিক ০৪ শতাংশ।

এছাড়া শেষ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীদের আগ্রহের শীর্ষ ১০ কোম্পানির তালিকায় থাকা- মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজের ২১ দশমিক ১০ শতাংশ, প্রগতী ইন্স্যুরেন্সের ১৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ, রংপুর ডেইরি অ্যান্ড ফুডের ১৭ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ, হামিদ ফেব্রিক্সের ১৬ দশমিক ১৭ শতংশ, ন্যাশনাল ফিডের ১৩ দশমিক ৫৯ শতাংশ, নাভানা সিএনজির ১৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ এবং কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজের ১৩ দশমিক ২৫ শতাংশ দাম বেড়েছে।

এমএএস/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]