বইমেলায় মাজহার সরকারের দুটি বই

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৫০ এএম, ২৪ জানুয়ারি ২০১৯

এবারের অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হতে যাচ্ছে কবি ও কথাসাহিত্যিক মাজহার সরকারের দুটি বই। বই দুটি হচ্ছে- মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘নেমক হারাম’ ও কাব্যগ্রন্থ ‘চিৎকার রণিত হৃৎপিণ্ডে’। প্রায় ৩০০ পৃষ্ঠার ‘নেমক হারাম’ প্রকাশ করতে যাচ্ছে প্রকাশনা সংস্থা ‘তাম্রলিপি’ এবং ৪৭টি কবিতা নিয়ে ‘চিৎকার রণিত হৃৎপিণ্ডে’ আসছে চট্টগ্রামের ‘চন্দ্রবিন্দু’ থেকে।

‘নেমক হারাম’ এর মূল বিষয়বস্তু মুক্তিযুদ্ধ হলেও উপন্যাসে এর কাহিনি শুরু হয়েছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনাকাল থেকে। কালনি নদীর তীরবর্তী একটি গ্রামের অন্ত্যজ শ্রেণির এক মাঝি পরিবারের দুই প্রজন্মের মুক্তি-আকাঙ্ক্ষা যুদ্ধের বাস্তবতায় ছড়িয়ে পড়েছে উপন্যাসের পাতায় পাতায়।

বইয়ের নাম সম্পর্কে মাজহার সরকার বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ কোনো সাধারণ যুদ্ধ নয়, যুদ্ধের প্রিফিক্স হিসেবে আছে ‘মুক্তি’ শব্দটি। যুদ্ধ শেষ হয়, কিন্তু মুক্তির প্রশ্ন থেকে যায়, থাকে শোষণ-বঞ্চনায় প্রভু বা মালিক এমনকি নিজের বিপরীতেও দাঁড়ানোর গণদাবি। এর বাইরে এটিকে একটি প্রেমের উপন্যাসও বলা যেতে পারে, সেখানেও আছে যুদ্ধাবস্থায় বিশ্বাসঘাতকতা।’

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস লেখার আগ্রহ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, আবার দেখেছি অগণিত বই-পুস্তক-পত্রিকা-সাময়িকী পঠন-পাঠনের মধ্য দিয়ে। যুদ্ধকে হৃৎপিণ্ডে ধারণ করেছি, চারপাশ থেকে যুদ্ধের উপকরণ নিয়েছি, তারপর নিজের কল্পনাকে বিস্তার করেছি। তার প্রতিধ্বনি এ উপন্যাস, যুদ্ধ বর্ণনায় নয়- যুদ্ধের পরিণতি নিয়ে। তবে ইতিহাসকে এখানে ব্যবহার করা হয়েছে লবণের মতো, অল্প।’

অপরদিকে ‘চিৎকার রণিত হৃৎপিণ্ডে’ কবিতার বইটিতে আছে গত কয়েক বছর বাংলাদেশে ঘটে যাওয়া নানা আলোচিত ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু কবিতা। খুন হওয়া পুরান ঢাকার দর্জি বিশ্বজিৎ দাস, হবিগঞ্জে ধর্ষণের পর খুন হওয়া দলিত শ্রেণির সুখিয়া রবিদাস, দারিদ্র ও অবহেলায় মারা যাওয়া চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউসুফ, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন, শহীদ মঈন হোসেন রাজু স্মরণ ইত্যাদি।

এসইউ/আরআইপি