ডুব দেখেছেন শাওন?

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:১৭ এএম, ২৮ অক্টোবর ২০১৭

সমালোচিত ও আলোচিত ‘ডুব’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে শুক্রবার। দেশের ৩৯টি সিনেমা হলে ছবিটি একযোগে চলছে। মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত এ ছবিটি মুক্তির আগে বিতর্ক বাধে। হঠাৎ করেই বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশ হয় জাজ প্রযোজিত ‘ডুব’র গল্প নন্দিত কথা সাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবন থেকে নেওয়া। সেখানে হুমায়ূনের দ্বিতীয় বিয়ের কাহিনিটাই তুলে ধরা হবে।

বিষয়টি জানার পর হুমায়ূন আহমেদের দ্বিতীয় স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন ছবিটির মুক্তি দিতে আপত্তি তোলেন। কিন্তু নির্মাতা ফারুকী বিষয়টি অস্বীকার করে দাবি করেন, এটা হুমায়ূন আহমেদের জীবন বা তার অংশ বিশেষও নয়। এটি সম্পূর্ণই একটি আলাদা গল্প। এ দাবির প্রতি চ্যালেঞ্জ জানিয়ে নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ছবিটি হুমায়ূনের জীবনের গল্পেই নির্মিত হয়েছে সেই পক্ষের যুক্তি ও তথ্য প্রমাণ তোলে ধরেন শাওন।

একইসঙ্গে হুমায়ূন আহমেদের বর্ণাঢ্য কর্মজীবনকে পাশ কাটিয়ে তার দ্বিতীয় বিয়ের কাহিনিকে উপজীব্য করে চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য হুমায়ূন ভক্তদের তোপের মুখে পড়েন মোস্তফা সরয়ার ফারুকী।

এরপর ছবিটি সেন্সরে জমা পড়লে এর মুক্তি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। কিন্তু প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ও ফারুকীর তৎপরতায় ছবিটি বেশ কিছু দৃশ্য কর্তনের পর মুক্তির অনুমতি পায় ও গেল শুক্রবার বাংলাদেশ, ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার ৮১টি হলে ছবিটি মুক্তি পায়।

অনেক আলোচনা ও প্রচারের চাকচিক্যে ছবিটি নিয়ে আশাবাদ তৈরি হয়েছিল। কিন্তু মুক্তির প্রথম দিনেই ব্যর্থতার অতলে হারিয়ে গেল ‘ডুব’। দুর্বল উপস্থাপনা, ধীরগতির দৃশ্যায়ন, দুর্বল গল্প ও বৈচিত্রহীনতায় নির্মাণে ছবিটি দর্শক টানতে পারেনি। ফেসবুক সয়লাব হয়ে গেছে ছবিটির সমালোচনায়। অনেকে হুমায়ূন আহমেদকে কৌশলে ছোট করার চেষ্টা হয়েছে ‘ডুব’ ছবিতে, এ দাবি করেছেন।

অনেকে বলছেন, শীলা আহমেদের দৃষ্টিকোণ থেকেই এ ছবিটি নির্মাণ করেছেন ফারুকী, ছবিতে উপস্থাপনা করা হয়েছে ‘সাবেরি’ চরিত্র। উদ্দেশ্য হয়তো শাওনকে ছোট করাই, যিনি ছবিতে এসেছেন ‘নীতু’ চরিত্রে। এমনি হরেক রকম মন্তব্যই পাওয়া যাচ্ছে।

তবে যাকে নিয়ে ‘ডুব’ এতো আলোচনার ‘জিনিস’-এ পরিণত হয়েছে সেই হুমায়ূন আহমেদের স্ত্রী শাওন কী ছবিটি দেখেছেন? দেখে থাকলে তার অনুভূতি কী? এই প্রশ্নই করছেন এখন সবাই। সেই উত্তর জানতে শাওনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি সময় পাইনি। খুব ব্যস্ততার মধ্যে দিন যাচ্ছে। সময় করতে পারলে ডুব দেখবো।’

মুক্তির পর অধিকাংশ দর্শক ছবিটি দেখে দাবি করছেন এটি হুমায়ূন আহমেদের দ্বিতীয় বিয়ের গল্পকে উপজীব্য করেই নির্মিত হয়েছে। আপনি কী কারো কাছ থেকে এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য পেয়েছেন? এ প্রশ্নের জবাবে শাওন বলেন, ‘না। হয়তো আমার পরিচিত অনেকেই দেখে থাকবেন ছবিটি। কিন্তু আমাকে কেউ কিছু বলেননি এ বিষয়ে। আর এই ছবিটা নিয়ে অনেক কথা হয়েছে, নতুন করে আর কিছু বলতে চাই না। যা বলার দর্শক ছবিটিা দেখার পর বলছেন। ফেসবুকে প্রচুর সমালোচনা দেখছি। শুনলাম ছবিটি দর্শক দেখছেন না। তবে আমি দেখবো।’

বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়ার পাশাপাশি কলকাতার এসকে মুভিজ ছবিটি প্রযোজনা করেছে। এ িছাড়া সহ-প্রযোজক হিসেবে রয়েছেন বলিউডের ইরফান খান।

এনই/এলএ

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :