ভোট ঘিরে ব্যক্তিগত আক্রমণের শিকার হয়েছি: জায়েদ খান

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:১৯ পিএম, ২৯ জানুয়ারি ২০২২
জায়েদ খান। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচেন টানা তৃতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান। নির্বাচনের ফল ঘোষণার পরপরই সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন নব-নির্বাচিত এ সাধারণ সম্পাদক। নির্বাচনকে ঘিরে যা ঘটেছে, তা নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন জায়েদ। একই সঙ্গে জানিয়েছেন শিল্পীদের নিয়ে আগামী দিনে তার পরিকল্পনার কথাও।

জায়েদ খান বলেন ‘আগের দুই টার্মের চেয়ে এবার শিল্পী সমিতির নির্বাচনটা আমার জন্য বেশ কঠিন ছিল। প্রথমত, কিছুদিন আগেই আমার মা পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন। দ্বিতীয়ত, নির্বাচনকে ঘিরে আমি ব্যক্তিগত আক্রমণের শিকার হয়েছি। তবে বিজয়ের পর সেসব নিয়ে আমার কোনো কষ্ট নেই। কোনো কিছুই মনে হচ্ছে না। বরং সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে মুগ্ধ হয়েছি। শিল্পীদের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা, তারা আমাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছেন।’

প্যানেলের সভাপতি প্রার্থী মিশা সওদাগর হেরে যাওয়ায় ‘ভীষণ মন খারাপ’ জানিয়ে নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমার সভাপতি মিশা সওদাগর ভাই হেরে গেছেন। ভীষণভাবে তাকে মিস করছি। উনার সঙ্গে গত চার বছর কাজ করেছি। তিনি আমার অভিভাবক। তার সঙ্গে বোঝাপড়াও চমৎকার। তার জন্য ভীষণ মন খারাপ লাগছে। আমার প্যানেলে যারা নির্বাচিত হতে পারেননি, তাদের জন্যও খুব খারাপ লাগছে। তারা যদি বিজয়ী হতেন, তাহলে টিম হিসেবে আরও ভালো কাজ করতে পারতাম। কারণ আমাদের একটা প্ল্যান ছিল।’

নির্বাচনে জয়ী সব প্রার্থীকে শুভকামনা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘জয়ী যারা হয়েছেন, তাদের জন্য শুভকামনা। শিল্পীরা যাদের যোগ্য মনে করেছেন, তাদের ভোট দিয়েছেন। সবার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা।’

ভালো কাজ করায় তাকে শিল্পীরা ভোট দিয়েছেন উল্লেখ করে জায়েদ বলেন, ‘ভালো কাজ কারেছি বলেই টানা তৃতীয়বারের মতো জয়ী হয়েছি। আশা করছি, শিল্পীদের সম্মান রাখতে পারবো। কাজ করতে গিয়ে কারও মনে কষ্ট দিয়ে থাকলে আমি ক্ষমা চাইছি।’

‘এবার আমি চেষ্টা করবো বেশি বেশি সিনেমা তৈরি করার। সেদিকে বেশি মনোযোগ দেবো এবং যে শিল্পীদের ঢাকা শহরে থাকার জায়গা নেই। তাদের বসবাসের জন্য ব্যবস্থা করবো’ বলেন জায়েদ খান।

এমআই/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]