ভূমিকম্প হলে কী হয়?

ফিচার ডেস্ক
ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৯ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আজ সকালে দেশের বিভিন্ন স্থানে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। গত কয়েক বছর যাবত এ ধরনের ভূমিকম্পের সংখ্যা বেড়ে গেছে। এ সম্পর্কে অনেক কিছুই আমাদের অজানা। তাই ভূমিকম্প বিষয়ক অজানা কিছু তথ্য তুলে ধরা হলো-

১. প্রতি বছর গড়ে ১৭টি বড় ধরনের ভূমিকম্প হয়। যার মাত্রা সাতের উপরে। আট মাত্রার ভূমিকম্প হয় একবার।
২. ভূমিকম্পের কারণে দিনের দৈর্ঘ্য কমবেশি হতে পারে। কারণ ভূমিকম্পের প্রভাবে পৃথিবী ঘুরতে থাকে সামান্য দ্রুত গতিতে আর তখন দিনের দৈর্ঘ্য কমে যায়।
৩. যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকো শহর প্রত্যেক বছর গড়ে দুই ইঞ্চি করে লস অ্যাঞ্জেলসের দিকে সরে যাচ্ছে।
৪. ভূমিকম্পের আগে পুকুর, খাল-বিল, হ্রদ, জলাশয়ের স্থির পানি থেকে দুর্গন্ধ আসতে পারে। এমনকি সেই পানি সামান্য উষ্ণও হয়ে যেতে পারে।
৫. ভূমিকম্পের পরেও পুকুরে কিংবা সুইমিং পুলের পানিতে কখনো কখনো ঢেউ দেখতে পারেন। একে বলা হয় শ্যাস। ভূমিকম্প শেষ হওয়ার কয়েক ঘণ্টা ধরে অভ্যন্তরীণ পানিতে তরঙ্গ অব্যাহত থাকতে পারে।
৬. ভূমিকম্পের কারণে যাতে বাড়ি-ঘর ধসে না যায়, সে জন্যই ইনকা আমলের স্থাপত্য ও জাপানি প্যাগোডা নির্মিত হয়েছিলো।

> আরও পড়ুন- ফেসবুকে ভূমিকম্প আতংক

৭. পৃথিবীতে যতো ভূমিকম্প হয়, তার ৯০ শতাংশই হয় রিং অব ফায়ার এলাকাজুড়ে। এলাকাটি প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে।
৮. ২০১০ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি ভূমিকম্পের কারণে চিলির একটি শহর ১০ ফুট পশ্চিমে সরে যায়।
৯. ভূমিকম্পে মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা কমে গিয়েছিলো এক ইঞ্চির মতো।
১০. জাপানি পৌরাণিক কাহিনিতে ভূমিকম্প হয়েছিলো বড়ো আকারের এক ক্যাটফিশের কারণে।
১১. প্রাচীন গ্রিকরা বিশ্বাস করতেন, সমুদ্রের দেবতা পজিডন রেগে গিয়ে পৃথিবীর ওপর আঘাত করলে ভূমিকম্প হতো। ১২. হিন্দু পুরাণে পৃথিবীকে ধরে রেখেছে আটটি হাতি। হাতিগুলো দাঁড়িয়ে আছে একটি কচ্ছপের পিঠের ওপর। ওই কচ্ছপটি ছিলো কুণ্ডলী পাকিয়ে থাকা একটি সাপের উপর। প্রাণীগুলোর যে কোনো একটি যখন নড়ে উঠতো তখনই ভূমিকম্প হতো।
১৩. বিজ্ঞানীরা মনে করেন, ভূমিকম্পের আগে ছোট ছোট কম্পন পশুপাখিরা টের পেয়ে যায়।
১৪. ব্রিটেনের প্রকৌশলী জন মাইকেল বলেন, ভূ-পৃষ্ঠের বহু নিচে শিলা-খণ্ডের অবস্থান পরিবর্তনের কারণে ভূমিকম্প হয়ে থাকে।

বিবিসি/এসইউ/এসআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :