বামহাতের অনামিকায় বিয়ের আংটি পরানো হয় কেন?

ফিচার ডেস্ক
ফিচার ডেস্ক ফিচার ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:৪৮ এএম, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিয়ে বা বাগদানের আংটি সাধারণত বামহাতের অনামিকায় পরানো হয়। বিশ্বজুড়েই এমন রীতি প্রচলিত আছে। সব ধর্মের মানুষই এ প্রথাকে বিশ্বাস এবং অনুসরণ করে আসছে। কিন্তু কেন এমনটি করা হয়? কখনো কি ভেবে দেখেছেন? তর্জনি, মধ্যমা বা কনিষ্ঠায় বিয়ের আংটি পরানো হয় না কেন? আসুন জেনে নেই এর কয়েকটি কারণ-

প্রাচীন বিশ্বাস: প্রাচীন কালের মানুষ বিশ্বাস করতো যে, বামহাতের অনামিকা সরাসরি হৃৎপিণ্ডের সঙ্গে সংযুক্ত। সে আঙুলে একটি রিং পরা জীবনসঙ্গীর সাথে চিরন্তন প্রেম এবং সংযুক্তির প্রতীক। কারণ বৃত্তের যেমন কোনো প্রান্ত নেই; তেমনই ভালোবাসারও কোনো প্রান্ত নেই। তারই চিহ্ন এ আংটি।

ভালোবাসার বন্ধন: লাতিন ভাষায়, বামহাতের অনামিকা ‘ভেনা অ্যামোরিস’ নামে পরিচিত। যার অর্থ ‘ভালোবাসার ধমনী’। মানুষ বিশ্বাস করে, বামহাতের অনামিকায় বাগদানের আংটি পরলে তা কোনো নারীকে তার জীবনসঙ্গীর সাথে ভালোবাসার বন্ধন গড়ে তুলতে সাহায্য করবে। কারণ আপনার জীবনসঙ্গীই আপনার হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের।

cover

আঙুলের সম্পর্ক: প্রাচীন কাল থেকে হাতের পাঁচটি আঙুলের সঙ্গে জীবনের পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ সম্পর্ক জড়িয়ে আছে-
১. অঙ্গুষ্ঠা বা বুড়ো আঙুল নির্দেশ করে বাবা-মাকে
২. তর্জনি নির্দেশ করে ভাই-বোনদের
৩. মধ্যমা নির্দেশ করে নিজেকে
৪. অনামিকা নির্দেশ করে জীবনসঙ্গীকে
৫. কনিষ্ঠা নির্দেশ করে সন্তানদের।

এসইউ/জেআইএম