ডিএনসিসি উপনির্বাচন নিয়ে আপিল শুনানি ৮ ফেব্রুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০১ এএম, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচন ও সম্প্রসারিত অংশের কাউন্সিলর নির্বাচনের তফসিল স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের (ইসির) করা লিভ টু আপিলের শুনানির জন্য ৮ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করা হয়েছে।

আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর চেম্বার জজ আদালত শুনানির জন্য রোববার আপিল বিভাগের নিয়মিত ও পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠিয়ে এ দিন নির্ধারণ করেন। আদালতে রোববার রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামরুল হক সিদ্দিক। আর ইসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফিদা এম কামাল ও তৌহিদুল ইসলাম।

এর আগে গত (১ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেন ইসির আইনজীবী। ওইদিন সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় পৃথক দুটি লিভ টু আপিল করা হয়।

গত ১৭ জানুয়ারি আলাদা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের একটি দ্বৈতবেঞ্চ ডিএনসিসির উপ-নির্বাচনের তফসিলের কার্যকারিতা স্থগিত করেন। একইসঙ্গে, ওই নির্বাচনের জন্য ইসির ঘোষিত তফসিল কেন ‘আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত’ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

এর আগে ডিএনসিসির মেয়রের শূন্য পদে উপ-নির্বাচনের ঘোষিত তফসিলের স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে পৃথক দুটি রিট দায়ের করেন রাজধানীর উত্তরের বেরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম ও ভাটারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩০ নভেম্বর মেয়র আনিসুল হকের আকস্মিক মৃত্যুর পর ডিএনসিসির মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের জন্য চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি তফসিল ঘোষণা করে ইসি। একই সঙ্গে ওইদিন ডিএসসিসির নতুন সংযোজিত ১৮টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে নির্বাচনেরও তফসিল ঘোষণা করা হয়। একই সময়ে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের ছয়টি করে ১২টি সংরক্ষিত মহিলা আসনের নির্বাচন করার কথা বলা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোট হওয়ার কথা ছিল।

এফএইচ/জেডএ/এআরএস