কোটা আন্দোলন : তিনজনের মামলা তদন্ত হাইকোর্টে স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:০৪ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন করা শিক্ষার্থীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের তিন যুগ্ম আহ্বায়কের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলার তদন্ত কার্যক্রম স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট।

তারা হলেন- বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. রাশেদ খাঁন, মো. শাখাওয়াত হোসেন রাতুল এবং লুৎফুননাহার লুমা।

আলাদা ৩টি আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে রোববার (২৫ আগস্ট) হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ (রোববার) রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

রায়ের পর জ্যোতির্ময় বড়ুয়া সাংবাদিকদের বলেন, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় গত বছর তথ্যপ্রযুক্তি আইনে (৫৭ ধারা) এসব মামলা দায়ের করা হয়। পরে ওই আইন বাতিল করে নতুন আইন করা হয়। ফলে এসব মামলায় চলা তদন্তের বৈধতা নিয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়।

শুনানি শেষে আদালত তদন্ত কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেছেন।

এফএইচ/আরএস/পিআর