বন্যায় ৪৮ ঘণ্টায় ২৪ শিশুর মৃত্যু

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:৪০ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৭

বন্যাদুর্গত বিভিন্ন জেলায় গত দেড় মাসে পানিতে ডুবে ৯২ জন মারা গেছেন। মৃতদের বেশিরভাগই শিশু। গত ৪৮ ঘণ্টায় পানিতে ডুবে ২২ শিশু ও সাপের কামড়ে বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে দুই শিশু মারা গেছে।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১৪ আগস্ট পানিতে ডুবে কুড়িগ্রামে ৩ জন, লালমনিরহাটে ৫ জন ও দিনাজপুরে ৪ শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া দিনাজপুরে সাপের কামড়ে একজন মারা গেছে। ১৫ আগস্ট পানিতে ডুবে সিরাজগঞ্জে একজন, কুড়িগামে তিনজন, লালমনিরহাটে একজন, নীলফামারিতে চারজন ও পঞ্চগড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। একই দিন দিনাজপুরে সাপের কামড়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে।

jagonews24

স্বাস্থ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতিতে স্বাস্থ্য মহাপরিচালক টেলিকনফারেন্সে আক্রান্ত বিভিন্ন জেলার সিভিল সার্জনদের কাছে জানতে চান পানিতে ডুবে শিশুরা কেন মারা যাচ্ছে।

এ সময় বিভিন্ন জেলার সিভিল সার্জন ও সংশ্লিষ্টরা জানান, শিশুদের অধিকাংশই সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টার মধ্যে মারা যাচ্ছে। এ সময় পরিবারের পুরুষ সদস্যরা কাজে ঘরের বাইরে এবং নারী সদস্যরা রান্নার কাজে ব্যস্ত থাকেন। নদীর ধারে খেলাধুলা করতে গিয়ে শিশুরা অসতর্কতাবশত ডুবে মারা যায়।

তারা আরও জানান, শিশুদের পানিতে ডুবে মরার হাত থেকে রক্ষা করতে স্বাস্থ্যকর্মীরা সচেতনতামূলক প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। তারা শিশুদের নদী বা পানির কাছাকাছি খেলাধুলা না করতে মাইকিং ও ব্যক্তিগতভাবে সতর্ক করছেন। শিশুদের বাবা-মায়েরা সচেতনতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে শিশুদের কোমরে ঘুংঘুর বেঁধে দিচ্ছেন। তবুও শিশুরা খেলাধুলা করতে গিয়ে ডুবে মরছে।

 

এমইউ/জেএইচ/আরআইপি/জেআইএম