ছিনতাইকারীর খপ্পরে মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৩৫ এএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭

রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানাধীন দয়াগঞ্জ সড়কে ছিনতাইকারীদের খপ্পরে পড়ে মায়ের কোল থেকে পড়ে পাঁচ মাসের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ছিনতাইকারীরা সড়কে এক নারী রিকশাযাত্রীকে একা পেয়ে তার ভ্যানিটি ব্যাগ ধরে টান দেয়। ব্যাগের সঙ্গে মায়ের কোলে থাকা শিশুও রাস্তায় পড়ে যায়। শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোমবার ভোরে রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানাধীন দয়াগঞ্জ এলাকা এ ঘটনা ঘটে। শিশুটির নাম আরাফাত। সে শরীয়তপুরের শাহ আলম ও আকলিমা বেগম দম্পতির ছেলে।

ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, মুমূর্ষু অবস্থায় শিশুটিকে ঢামেকে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, শিশুর মা আকলিমা ও বাবা শাহ আলম। তাদের বাড়ি শরীয়তপুর জেলায়। ভোরে লঞ্চযোগে শরীয়তপুর থেকে ঢাকায় আসছিলেন তারা। অসুস্থ অপর সন্তান আল আমিনের (২০) চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আসেন তারা।

এ ব্যাপারে মা আকলিমা সাংবাদিকদের বলেন, ছেলে আল আমিনের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় আসা। লঞ্চ থেকে বাবা শাহ আলম বড় ছেলে আল আমিনকে নিয়ে শিশু হাসপাতালে যায়। আমি আরাফাতকে নিয়ে রিকশাযোগে শনির আখড়ায় বোন মাকসুদার বাসায় রওনা হই। রিকশা দয়াগঞ্জে পৌঁছলে ২-৩ জন ছিনতাইকারী হঠাৎ দৌড়ে এসে ভ্যানিটি বেগ ধরে টান মারে। কিছু বুঝে উঠার আগেই ব্যাগের সঙ্গে কোল থেকে পড়ে যায় আমার আরাফাত।

মা আকলিমা বলেন, এক সন্তানকে বাঁচাতে এসে আরেক সন্তানকে হারাবো ভাবতে পারিনি। ওরা আমার শুধু ব্যাগ নিলেও আফসোস ছিল না। কিন্তু ওরা আমার বুকের ধনও কেড়ে নিলো!

এ ব্যাপারে গেন্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) কাজী মিজানুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। ছিনতাইকারীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা তাদের গ্রেফতারে অভিযান শুরু করেছি।

জেইউ/এআরএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :