রোকেয়া স্মরণি থেকে অপহরণ হন মুবাশ্বার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০২ এএম, ২২ ডিসেম্বর ২০১৭

দেড় মাস নিখোঁজ থাকার পর বাড়ি ফিরেছেন নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের সহকারী অধ্যাপক ড. মুবাশ্বার হাসান সিজার। বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে সুস্থ দেহে রাজধানীর বনশ্রীর বাসায় ফিরেছেন তিনি। তার ফেরায় সংবাদে বাসায় ভীড় করেছেন আত্মীয় স্বজনরা।

শুক্রবার সকাল ১০টা দিকে তিনি কথা বলেন জাগো নিউজের সঙ্গে। মুবাশ্বার বলেন, ‘ওই দিন (নিখোঁজের দিন) আমি উবারে করে রোকেয়া স্মরণি দিয়ে আগারগাঁও যাচ্ছিলাম। রোকেয়া স্মরণিতে আমার গাড়ির গতিরোধ করা হয় এবং চোখে-মুখে মলম জাতীয় কিছু লাগিয়ে দেয়। এরপর আমি আর কিছু জানি না। আমার যখন জ্ঞান ফিরে তখন দেখি একটি কক্ষের মধ্যে বন্দি।’

কী কারণে আপনাকে অপাহরণ করা হতে পারে বলে ধারণা করেন -এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘তারা (অপহরণকারীরা) হয়তো ভেবেছিল আমি অনেক ধনী, টাকা-পয়সার মালিক।’

উল্লেখ্য, গত ৭ নভেম্বর বিকেলে নিখোঁজ হন নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির পলিটিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড স্যোশিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুবাশ্বার হাসান সিজার। ওই দিন সকালে দক্ষিণ বনশ্রীর বাসা থেকে বের হয়ে তিনি নিজের কর্মস্থল নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটিতে যান। সেখান থেকে বিকালে আগারগাঁওয়ের আইডিবি ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের একটি মিটিংয়ে গিয়েছিলেন। মিটিং থেকে বের হওয়ার পরপরই নিখোঁজ হন তিনি।

জেইউ/আরএস/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :