মরদেহ শনাক্তে নেপালের বিভিন্ন দফতরে আলোচনা চলছে : বিমানমন্ত্রী

আদনান রহমান
আদনান রহমান , নিজস্ব প্রতিবেদক নেপাল থেকে
প্রকাশিত: ১১:১৩ এএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্তে নিহত বাংলাদেশিদের মরদেহ ময়নাতদন্তের পর দেশে আনা হবে। ময়নাতদন্তের পর দেশে নিয়ে মরদেহ যাতে শনাক্ত করা যায় সে বিষয়ে নেপালের বিভিন্ন দফতরে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন বিমানমন্ত্রী এ কে এম শাজাহান কামাল।

বুধবার সকাল সাড়ে ৮টায় হোটেল ইয়াক ইয়েতিতে নেপালের সেনাপ্রধান রাজেন্দ্র ছেত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তিনি এ কথা জানান। সূত্রে জানা গেছে, সাক্ষাতে মন্ত্রীকে দুর্ঘটনা ও দুর্ঘটনা পরবর্তী অবস্থা সম্পর্কে ব্রিফ করেন নেপালের সেনাপ্রধান। এছাড়া বেলা ১২টায় নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বিমানমন্ত্রী। এরপর বিমানবন্দরের দুর্ঘটনা স্থলে যাবেন তিনি। উদ্ধার কাজে নেপালের সেনা সদস্যরা অংশ নেয়।

এর আগে দূর্ঘটনা পরবর্তী সার্বিক বিষয়ে খোঁজখবর ও করণীয় নির্ধারণে মঙ্গলবার বিমানের একটি ফ্লাইটে কাঠমান্ডু যান বিমানমন্ত্রী। তার সঙ্গে রয়েছেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) পরিচালনা ও পরিকল্পনা সদস্য এয়ার কমোডর মোস্তাফিজুর রহমানসহ তিন জনের একটি টিম।

প্রসঙ্গত, ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত বাংলাদেশের বেসরকারি বিমানসংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ৫০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। সোমবার নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে ৪ ক্রুসহ ৬৭ আরোহীবাহী বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

এআর/ওআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :