বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের সহায়তা দেয়ার আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১০:১১ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

নেপালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ‘খুবই দুর্ভাগ্যজনক’ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দলের নেতাকর্মীদের দুর্ঘটনায় হতাহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমি আমাদের দলের নেতাকর্মীদের বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের নির্দেশ দিয়েছি এবং তাদের কাছে আমাদের সমবেদনা পৌঁছে দিতে বলেছি। আমরা তাদের সবধরনের সহায়তা দেয়ার চেষ্টা করছি।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আজ সন্ধ্যায় দলের প্রেসিডিয়াম, উপদেষ্টামণ্ডলী ও কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটি ও অঙ্গসংগঠনসমূহে সঙ্গে যৌথ সভায় দেয়া বক্তৃতায় এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের পরিবারগুলোর বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে অবহিত হবে এবং দল তাদের কীভাবে সহায়তা করতে পারে তার একটি উপায় খুঁজে বের করবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই দুর্ঘটনায় বাংলাদেশ, নেপাল, চীন ও মালদ্বীপের নাগরিকসহ প্রায় ৫১ জন লোক নিহত হয়েছেন, যা খুবই দুঃখজনক।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের দু’জন কর্মকর্তা, সিলেটের একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের কয়েকজন ছাত্র এবং সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) টিমের একজন সদস্য ওই বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আবেগরুদ্ধ কণ্ঠে বলেন, ‘ফোটার আগেই কয়েকটি ফুল ঝরে গেল।’

সিঙ্গাপুরে সরকারি সফর সংক্ষিপ্ত করে গতকাল দেশে ফিরে এসেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ঘটনার পরপরই সিঙ্গাপুর থেকে আমি নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি।’

দুর্ঘটনায় আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বাংলাদেশ একটি মেডিকেল টিম পাঠাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এছাড়া হতাহতদের চিহ্নিতের জন্য ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করতে আমরা আরও একটি টিম পাঠাচ্ছি।’

তিনি বলেন, দুর্ঘটনার পর নেপাল কর্তৃপক্ষ দ্রুত উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী কাঠমান্ডুতে বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতদের স্মরণে বৃহস্পতিবার একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার সারাদেশে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। এছাড়া শুক্রবার সারাদেশে সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং মসজিদ, মন্দির, গির্জা, প্যাগোডাসহ সকল উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা করা হবে।

এফএইচএস/এমএআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :