অনিয়ম ঘটলে সংশ্লিষ্ট উপজেলায় নির্বাচন বন্ধ : সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০৪ পিএম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কোথাও অনিয়ম ঘটলে প্রয়োজনে সেখানে নির্বাচন বন্ধ করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত ইটিআই ভবনে ৫ম উপজেলা নির্বাচন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধনের সময় তিনি এ কথা বলেন।

নূরুল হুদা বলেন, ‘যদি কোনো রিটার্নিং অফিসার মনে করেন, তার সম্পূর্ণ উপজেলায় নির্বাচন করার পরিবেশ নেই, তবে সেটা বন্ধ করে দেয়ার সুপারিশ করবেন। কমিশন সেটা বিবেচনা করে দেখবে। আমরা সে অবস্থানে থাকতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘কখনো কোনো জায়গায় প্রার্থী, দল বা কেউ আইন ব্যত্যয় ঘটালে এবং তা নির্বাচন রিটার্নিং কর্মকর্তার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে, পুরো উপজেলা পরিষদ নির্বাচন বন্ধ করে দেয়া হবে। কিন্তু নির্বাচনে কোনো রকম অনিয়মের সঙ্গে আপোষ করা যাবে না।’

উপজেলা নির্বাচনের আগে, পরে ও ভোটের দিন যেন সংহিসংতার ঘটনা না ঘটে সে বিষয়ে নজর দিতে বলেন কমিশন প্রধান। নূরুল হুদা বলেন, ‘মানুষ ভোট দেবে। ভোটারের পছন্দের প্রার্থী বিজয়ী হবে। প্রার্থী কোনো দলের, কোনো ধর্মের, কোনো বর্ণের সেটা দেখার দায়িত্ব আমাদের নয়।’

প্রার্থীরা যাতে এজেন্ট দেয়, সে জন্য নির্বাচন কর্মকর্তাদের উৎসাহ দেয়ার আহ্বান জানান সিইসি। তিনি বলেন, ‘এজেন্টদেরকে নিয়ে সবসময় আপনাদেরকে বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে হয়। নির্বাচনে প্রার্থীরা যাতে ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট দেন, সে জন্য তাদেরকে উৎসাহিত করবেন। এজেন্টরা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এজেন্ট থাকা এবং যাওয়ার দায়িত্ব তো আপনারা নিতে পারেন না। সেটা প্রার্থীর বিষয়। তবে এজেন্টরা যাতে সেখানে নিরাপদে নির্ভয়ে থাকতে পারেন, এটা দেখবেন।’

সিইসি দাবি করেন, ‘অনেকে বলেন, প্রয়োজনে নিষ্প্রয়োজনে বলেন যে, আমাদের এজেন্টকে কেন্দ্রে যেতে দেয়া হয়নি। আপনারা যদি না পাঠান তাহলে কেন্দ্রে এজেন্ট কিভাবে যাবে? পোলিং এজেন্টদের বিষয়ে অভিযোগ আসে বেশি। যে, তাদেরকে কেন্দ্রে যেতে দেয়া হয় না। অভিযোগগুলো অনেক ক্ষেত্রেই সঠিক না।’

ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে আসতে দেয়া হয় না -এমন অভিযোগও রয়েছে উল্লেখ নূরুল হুদা বলেন, ‘বলা হয়ে থাকে, ভোটারদেরকে ভোট দিতে আসতে দেয়া হয় না। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদেরকে এ বিষয়টি ভালোভাবে বুঝিয়ে দেবেন। কোনো কোনো জায়গায় ভয়ভীতি দেখানো হয় বা হতে পারে। সেগুলোকে ভালোভাবে নজরদারিতে রাখতে হবে।’

উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষকদের প্রশিক্ষণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে চার নির্বাচন কমিশনার ও ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

পিডি/আরএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]