অগ্নিকাণ্ডের দায় সবাইকে নিতে হবে : নাসিম

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১৫ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের দায় সবার। যারা সরকারে আছেন তাদের সবাইকে এ দায় নিতে হবে। তাই কেউ দায় এড়াতে পারে না। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করছি।

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের বার্ন ইউনিটে চকবাজারের অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের দেখতে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে মোহাম্মদ নাসিমের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতারা যান বার্ন ইউনিট যান। অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের খোঁজ-খবর নেয়ার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আওয়ামী লীগের এ বর্ষীয়ান নেতা।

সাবেক এ মন্ত্রী এসময় বলেন, বল প্রয়োগ করে হলেও পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যালের ব্যবসা সরাতে হবে। জনস্বার্থে কোনো কম্প্রোমাইজ করা যাবে না। চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের দায় সবার। যারা সরকারে আছে সবাইকে এ দায় নিতে হবে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করছি।

তিনি আরও বলেন, চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক ও দুর্ভাগ্যজনক। নিমতলীর পর এই ঘটনায় আমরা আবারো অনেকগুলো মানুষকে হারিয়েছি। আমি এখানে দগ্ধদের সাথে দেখা করেছি। ঢামেক বার্ন ইউনিটের চিকিৎসকরা অত্যন্ত যত্নসহকারে তাদের চিকিৎসা করছেন। যারা এখনো লড়াই করছেন, আশা করছি তারা দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবেন।

মন্ত্রী বলেন, অর্থলোভী ব্যবসায়ীদের কাছে মানবতা আজ লুণ্ঠিত হয়েছে। এখন আমাদের উচিত হবে দ্রুততম সময়ে অর্থাৎ তিন মাসের মধ্যে এই কেমিক্যাল ব্যবসাকে কেরানীগঞ্জের নির্ধারিত স্থানে স্থানান্তর করা। এক্ষেত্রে কোনো কম্প্রোমাইজ করা যাবে না। এই ব্যবসা কোনোভাবেই পুরান ঢাকার ঘনবসতি এলাকায় থাকতে পারে না। জনগণের স্বার্থে প্রয়োজনে বল প্রয়োগ করে হলেও তাদের সরিয়ে দিতে হবে। প্রয়োজনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা নিতে হবে।

তিনি বলেন, যদি ট্যানারির মতো এতো বড় শিল্পকে সাভারে স্থানান্তর করা যায় তাহলে কেমিক্যাল কেন করা যাবে না? আমরা চাই কেউ কাউকে দোষারোপ না করে দ্রুত পুরান ঢাকা থেকে ক্যামিকেল ব্যবসা স্থানান্তর করা হোক।

সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমুর গাফলতির কারণে পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল সরেনি। সম্প্রতি ১৪ দল নেতা দিলীপ বড়ুয়ার বক্তব্যের বিষয়ে নাসিম বলেন, 'দিলীপ বড়ুয়ার এভাবে কথা বলা ঠিক হয়নি। আমার দলের একজন সিনিয়র নেতা। তিনি হাজারীবাগ থেকে ট্যানারি সরিয়ে নিয়েছেন। এখানকার কেমিক্যাল এর উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল তবে সময়ের জন্য সেটা করতে পারেননি।'

এআর/এসএইচএস/পিআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :