নদ-নদীতে লবণাক্ত পানি বাড়ছে!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১৫ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯

কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেছেন, বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে দেশের কৃষিখাত সর্বোচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে সমুদ্রে পানির উচ্চতা বাড়ছে। ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাচ্ছে। আগের তুলনায় নদ-নদীতে মিঠাপানির পরিমাণ কমছে। বাড়ছে লবণাক্ততা।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) কৃষি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরামের (বিসিজেএফ) কার্যনির্বাহী কমিটি সদস্যদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, একসময় শুধুমাত্র খুলনা ও সুন্দরবন অঞ্চলের পানি লবণাক্ত থাকলেও বর্তমানে গোপালগঞ্জে লবণাক্ত পানি পাওয়া যাচ্ছে। দেশের মোট জিডিপির (২২ লাখ কোটি টাকা) শতকরা ১৬ ভাগ এখনও কৃষিখাত থেকে আসে। এ খাত আক্রান্ত হলে প্রভাব পড়বে জাতীয় অর্থনীতিতে।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে বিশ্বের সর্বোচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ছয় দেশের মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। ভৌগোলিক অবস্থান ও বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে দেশে অধিক বৃষ্টিপাত, বন্যা, জলোচ্ছ্বাস ও ঘূর্ণিঝড়সহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখা দেয়। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে কৃষিখাতের ঝুঁকি মোকাবেলা করে ফসল উৎপাদন অব্যাহত রাখতে সরকার নানামুখী কৌশল ও পদ্ধতি উদ্ভাবনে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, বর্তমানে দেশে চাল উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ হলেও গম উৎপাদনে পিছিয়ে রয়েছে। গত বছর ৫৯ লাখ টন গম আমদানি করতে হয়েছে। গম উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত নির্দিষ্ট তাপমাত্রা প্রয়োজন হয়। তাপমাত্রায় হেরফের হলে কাঙ্ক্ষিত মাত্রার উৎপাদন হয় না।

তিনি বলেন, বর্তমানে চালের বদলে গমের চাহিদা বেড়েছে। গম উৎপাদন বৃদ্ধি করতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞানীরা নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবনে প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন।

বিসিজেএফ সভাপতি কাওসার রহমানের সভাপতিত্বে ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেনের সঞ্চালনায় সৌজন্য সাক্ষাতের শুরুতে সংক্ষিপ্ত পরিচিতি পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। পরিচিত পর্ব শেষে সংগঠনের পক্ষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন বিসিজেএফ সভাপতি কাওসার রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক প্রসূন আশীষ এবং কার্যনির্বাহী সদস্য মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল, সিনিয়র সদস্য নিজামুল হক বিপুল ও শামীম আহমেদ প্রমুখ।

মন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে কৃষিখাতের ঝুঁকি মোকাবেলা রোধে বিসিজেএফের সঙ্গে সম্মিলিতভাবে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন। সৌজন্য সাক্ষাৎকালে কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামানসহ মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এমইউ/এএইচ/জেআইএম