সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৭ পিএম, ২৩ মার্চ ২০১৯

সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবি জানিয়েছে নাগরিক পরিষদ নামক একটি সংগঠন। পাশাপাশি পানি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্যের দাবিও জানান তারা।

শনিবার (২৩ মার্চ) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সীমান্ত হত্যা উদ্বেগজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ফেলানী হত্যার বিচার আজও হয়নি। বিশ্ববাসী, বাংলাদেশ এবং ফেলানীর পরিবার দৃষ্টান্তমূলক বিচারের আকাঙ্ক্ষায় প্রহর গুনছে। ফেলানী হত্যার বিচার না হলে, সীমান্ত হত্যা বন্ধ হবে না।

তারা আরও বলেন, ফারাক্কা, গজলডোবা, টিপাইমুখ বাঁধ এবং আন্তঃনদী সংযোগ প্রকল্প বাংলাদেশকে মরুভূমিতে পরিণত করবে। প্রবাহিত নদীগুলো আমাদের জাতির দেহে রক্তপ্রবাহ। এ বছর অকাল বন্যায় লালমনিরহাটসহ তিস্তা পাড়ের জেলা ও দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চল ভয়াবহ হুমকিতে আছে। তাই সীমান্তে হত্যা বন্ধ ও পানির আগ্রাসন রোধে জাতীয় ঐক্যের বিকল্প নেই।

নাগরিক পরিষদের আহ্বায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলনের আহ্বায়ক হারুন অর রশিদ খান, নাগরিক পরিষদের সদস্য সচিব হিফজুর রাহমান, লালমনিরহাট অধিকার ফোরামের আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান মনির, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. সামছুল আলম প্রমুখ।

এএস/এএইচ/এমকেএইচ